স্বপ্নের বাংলাদেশ ২০১২: ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথের দাম হবে এক হাজার টাকায় এক মেগা বিট

এক হাজার টাকা মানে প্রায় পনের ডলার এবং এতে করে এই টাকা দিয়ে এক মেগা বিট (১২৮ কিলো বাইট) গতির ইন্টারনেট বিশ্বের অনেক দেশেই পাওয়া সম্ভব। তাই বাংলাদেশে এটি না হওয়ার কোন কারণ নাই। আমাদের সাবমেরিন ক্যাবলের ক্ষমতা ধীরে ধীরে বাড়ছে এবং একই সঙ্গে এটাও আমরা জানি যে যা কাপাসিটি তার অর্ধেকও ব্যবহৃত হচ্ছে না। তাই ইন্টারনেটের ব্যান্ডউইথ এক হাজার টাকায় এক মেগা বিট যদি সরকার নামিয়ে নেয় তাতে মনে হয়না খুব বেশি ক্ষতি হবে। বরং ইউজারদের সংখ্যা অনেক বেড়ে যাবে এবং এতে করে পরোক্ষভাবে অনেক কর্ম সংস্থানের সু্যোগের সৃষ্টি হবে।
এই জিনিসটা আমাদের কর্তা ব্যক্তিদের বুঝতে হবে এবং আমাদেরকে এ ব্যাপারে আরো সচ্চার হতে হবে। ইন্টারনেটের ব্যান্ডউইথের দাম যদি সত্যি আশাতীতভাবে কমানো হয় তবে তাতে করে ইন্টারনেটের ব্যবহার অনেক বাড়বে এবং অনেক লোকের কর্মসংস্থান হবে।
তবে সত্যি বলতে কি এই স্বপ্নের বাস্তবায়ন সম্পর্কে আমি খুব বেশি আশাবাদি নই। আবার অন্যদিকে যদি বেসরকারি সেক্টরে যদি কোন সাবমেরিন ক্যাবেল চলে আসে তবে তাহলেও তা হতে পারে। কেননা আমরা এক সময় দেখেছি যে মোবাইলের রেট ছিল সাত টাকার মত এবং তা এখন গড়ে এক থেকে দেড় টাকা প্রতি মিনিট। তাই ইন্টারনেটের দাম এক মেগা বিট এক হাজার টাকা হওয়াটাকে খুব বেশি অসম্ভব মনে হয়না। ২০১২ সাল নাগাদ হবে না। তবে ২০১৫ সাল নাগাদ অবশ্যই হতে পারে।

About কমপিঊটার পাগল

একটি উত্তর দিন