১২,০০০ টাকার ল্যাপটপ ও কিছু কথা

আমরা গত দুই-একদিন আগে পত্রিকায় দেখতে পেলাম যে বাংলাদেশ সরকারের টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী জানিয়াছেন জুন মাসের মধ্যে ১২,০০০ টাকার ল্যাপটপ পাওয়া যাবে। অর্থাৎ আর এক বা দুই মাসের মধ্যেই বাংলাদেশে ১২,০০০ টাকায় ল্যাপটপ পাওয়া যাবে এবং এটা কিভাবে কিভাবে মানুষের মধ্যে বিতরণ করা হবে তা আমরা এখনো জানতে পারিনি। এ ল্যাপটপটি খোলা বাজারে বিক্রি হবে নাকি শুধুমাত্র স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের দেওয়া হবে? শুধু এ প্রশ্ন নয়, আরো অনেক প্রশ্ন মাথায় ঘুরছে আমাদের মধ্যে। যেমন- এ ল্যাপটপের কনফিগারেশন কি হবে এখনো আমরা তা জানিনা। ল্যাপটপটি কয় ঘণ্টা ব্যাটারিতে চলবে।

এটি একটি বড় প্রশ্ন কেননা বাংলাদেশে বিদ্যুৎ সমস্যা একটি বড় সমস্যা এবং ব্যাটারিতে যদি ২-৩ ঘণ্টা না চলে তবে ১২,০০০ টাকায় ল্যাপটপ কিনে কতোটা লাভবান হতে পারবে সাধারণ মানুষ সেক্ষেত্রে প্রশ্ন থেকে যায়। তবে সব কথার শেষ কথা হচ্ছে, সামগ্রিক বিচারে এ ল্যাপটপটি অবশ্যয় আমাদের জন্য একটি ভাল সংবাদ। যদি ভাল চাহিদা দেখা যায় তাহলে অবশ্যয় আরো অনেক বড় বড় কোম্পানি বাংলাদেশে এসে এ ধরণের উতপাদনে মনযোগী হবে। বাস্তবতা হচ্ছে যেখানেই কোনো পণ্যের বাজার রয়েছে সেখানেই পৃথিবীর বড় বড় কোম্পানি গুলো আসতে চায়।

About কমপিঊটার পাগল

একটি উত্তর দিন