নেটওয়ার্ক দর্শনার মিলন মেলা

নেটওয়ার্ক দর্শনার মিলন মেলা

‘আবার দেখা যদি হলো সখা, প্রাণের মাঝে আয়’ গুরু কবির এই কবিতার মতোই টেনেছিল প্রাণের মাঝে ফেসবুক ভিতিক সংগঠন ‘নেটওয়ার্ক দর্শনা’। সবাই এসেছিলেন ছুটে। নাড়ির টান তা কি ভোলা যায়? আর সেই টানে সেই আবেগে সকলেই একত্রিত হয়েছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি চত্বরে। সেখানে জায়গা নেই। ঠাঁই হলো কার্জন হলের শ্যামলে সবুজে নিলীমায় নিলের মায়া ভরা মাঠে। উদ্দোক্তা আলী কদর, [link|http://www.facebook.com/saiful.akash|সা্ইফুল ইসলাম আকাশ] , লিমন,ফিরোজ, জাহানারা জেসমিন, রিন্টু, রকি, রাজন, সাহিদ, জাহেদুজ্জামান, তুষার মন্জু, আরো আরো অনেকে। শিরোমনি হয়ে ছিলেন বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের এডভোকেট চুয়াডাঙ্গার কৃতি সন্তান শামীম উল আলম। পিছনে থেকে কষ্ট করে যে সবাইক টেনেছেন তিন হচ্ছেন [link|http://www.facebook.com/arif.tarafdar|আরিফ তরফদার] । গল্প, আড্ডা, মতবিনিময় কি ছিলো না অনুষ্ঠনে? তাদের মুখেই ছিল একই কথা ‘আমরা চুয়াডাঙ্গার সন্তান’, জয়তু চুয়াডাঙ্গা।

আগামী ২০ মে এমনি একটি মিলন মেলা বসবে এড. শামীম ভাইয়ের বাসার ছাদে। তাঁরা সকলে চুয়াডাঙ্গাবাসীকে আমন্ত্রণ জানিয়ছেন। প্রধান উদ্যোক্তা আলী কদর সবার শুভ কামনা জনিয়ে বিদায় দিয়েছেন। অন্যদের মধ্যে হ্যালোটুডের সম্পাদক আলী কদর পলাশ ও [link|http://www.addressbazaar.com|অড্রেস বাজার ডট কম] এর সি.ই.ও [link|http://www.facebook.com/saifur.rony|মোঃ সাইফুর রহমান (রনি)] উপস্থিত ছিলেন।

‘শেষ হইয়াও হইলো না শেষ’ অনুষ্ঠানের সময় নির্ধারণ করা ছিলো বিকেল ৪টা থেকে ৬টা। কিন্তু ‘পাগল পারা মন’ ঘড়ির দিকে কারো খেয়াললই নেই। সবাই সবুজ প্রান্তরে বসে শুধু যেন গাইছে, ‘ যে মাটির বুকে ঘুমিয়ে আছে লক্ষ মুক্তি সেনা, দে….না, দে…….না, সে মাটি আমার অঙ্গে মাখিয়ে দেনা।’

About সাইফুর রহমান (রনী)

I am a hard worker, honest & truthful. I do not afraid of struggle. I have a calm mind. I can take quick decision for anything. I have good analytical ability. I can easily match with any critical environment. My hobby is expending time on internet and get together with friend and family. I mostly dislike “NO”. My Skype name is: saifurrahman.rony

একটি উত্তর দিন