বাংলাদেশে স্মারটফোন জনপ্রিয় হওয়ার পিছনে সমস্যা

এর আগে আমি উল্লেখ করেছিলাম স্মার্টফোনের ব্যবহার এখনোও তেমন বাংলাদেশে হয়নি। এ ব্যপারে সবচেয়ে বড় বাধা হচ্ছে দাম। নোকিয়া এন৮ ফোনের কথাই ধরা যাক না। যতদূর জানি এর দাম ৩৫০০০-৪০০০০ এর মধ্যে। এত দাম দিয়ে কেনা কয়জনের পক্ষে সম্ভব। আমেরিকাতে দেখা যায় যে ক্যারিয়ার গুলো এবং নির্মাতা কোম্পানি গুলো মিলে ভর্তুকি দেয় কিছুটা। ক্যারিয়ার গুলো অল্পদামে ফোন ছাড়ে এবং এর ফলে দুই বছর আপনি হয়তো তাদের ডাটা প্ল্যানের অধীনে থাকতে বাধ্য থাকবেন।

বাংলাদেশে এই জিনিসটা হয়তো করা যায় ধীরে ধীরে। হয়তো গ্রামীণ থেকে আমি একটি নোকিয়ার স্মার্টফোন কিনলাম সেই নোকিয়া এন৮ ফোনটি হয়তো ২০০০০ টাকা দিয়ে কিনলাম এবং তারপরে দুই বছর বা ২৪ মাসে আমার গ্রামীণের ইন্টারনেট ও অন্তত ১৫০০ টাকার ফোনে কথা বলতে হবে এ ধরণের একটি প্যাকেজ হয়তো গ্রামীণফোন আমাকে ২০০০-২৫০০ টাকায় দিতে পারে তিন বছরের জন্য। নোকিয়া আবার গ্রামীণফোনকে কিছুটা কম দামে দিবে এই সেটটি এবং গ্রামীণ কিছুটা ভর্তুকি দিবে। এভাবে স্মার্টফোনের দাম বাংলাদেশে এক সময় হয়তো কমে আসবে। তবে তা করতে গিয়ে অনেক সমস্যার কথাও মনে হয়। বাংলাদেশে এখনোও কিস্তিতে কেনা তেমন জনপ্রিয় হয়নি। তাছাড়া হয়তো অনেকে ফোন নিয়ে মাসিক কিস্তি দিতে চাইবেন না। এসব সমস্যার ফলে স্মার্টফোনের ব্যবহার বাংলাদেশে বাড়ছে না।

About মোঃ লিটন

একটি উত্তর দিন