যারা স্মাইল (বিডিকম) ব্রডব্যান্ড লাইন ব্যবহার করেন তাদের জন্য ► <strong>ফাটাফাটি ডাউনলোড</strong>  B-)  B-)

যারা স্মাইল (বিডিকম) ব্রডব্যান্ড লাইন ব্যবহার করেন তাদের জন্য ► ফাটাফাটি ডাউনলোড B-) B-)

প্রাক্তন স্মাইল বা বর্তমানে বিডিকম ব্রডব্যান্ড কানেকশন যারা ব্যবহার করছেন তাদের জন্য সুখবর! অবশ্য অনেকেই হয়তো এটা জানেন।

বিডিকমের নিজস্ব দু’টি টরেন্ট ট্র্যাকার সাইট থেকে টরেন্টফাইল নামিয়ে ফাটাফাটি গতিতে মুভি, ডকুমেন্টারি, নাটক ইত্যাদি ডাউনলোড করতে পারবেন। মূলত: ফাইলগুলো তাদের নেটওয়ার্কের কোনো না কোনো পিসি থেকে আসে বলে এত স্পিড পাওয়া যায়! 😀 😀

আগে দেখে নিন আমার টরেন্ট ডাউনলোড স্পিড।

উল্লেখ্য, এটি আপনার সাধারন ইন্টারনেট গতির ওপর কোনো প্রভাব ফেলেনা। ফলে দ্রুগতিতে এই ডাউনলোড করার পাশাপাশি আপনার স্বাভাবিক ব্যবহার, ডাউনলোড চালাতে পারবেন কোনো সমস্যা ছাড়াই!

একটি হলো: [link|http://www.shoutnshare.info/html/torrents.php|শাউট অ্যান্ড শেয়ার ]: http://www.shoutnshare.info

আর অন্যটি: [link|http://daruchinibd.com/torrent|দারুচিনি বিডি] : http://www.daruchinibd.com/torrent

শাউট অ্যান্ড শেয়ার: এখানে কোনো রেজিস্ট্রেশনের দরকার নেই। হোমপেজে বিভিন্ন টরেন্টের লিস্ট দেয়া আছে, সার্চ দিয়ে বা পেজ স্কিপ করে পছন্দের কোনো মুভি বেছে নিতে পারবেন। এই সাইট খুব নিয়মিত আপডেট হয় না!
এখান থেকে ডাউনলোড স্পিড পাওয়া যায় ৮০০ কি.বাইট/সে. – এর কাছাকাছি!

দারুচিনি বিডি: এই সাইটে রেজিস্ট্রেশনের দরকার হবে। রেজিস্ট্রেশন করা সহজ ও আর একবার করে ফেল্লেই ঝামেলা শেষ। সাইটে ঢুকে একটু গুতোগুতি করেই বুঝে যাবেন কি করতে হবে। এটি অনেকটা টরেন্ট শেয়ারিং কমিউনিটির মতো হয়ে গেছে। একে অপরের সাথে চাওয়া-পাওয়া শেয়ার করা যায়।
সাইটটি আপডেট হয় নিয়মিত। ডাউনলোড স্পিড নির্ভর করে সিডের ওপর, তবুও বেশির ভাগ সময়ে তা ৩০০ কি.বাইট/সে এর ওপরে থাকে!

এবার তাহলে মুভি শেয়ারিংয়ের নতুন দিগন্ত উম্মোচন করুন! 🙂 🙂

About অক্টোপাস