লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম -ইন্টারনেট রেডিও স্টেশন

লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম -ইন্টারনেট রেডিও স্টেশন

এফএম রেডিও বাংলাদেশে একটি সম্পূর্ণ নতুন ধরনের শ্রোতা গোষ্ঠি তৈরী করেছে। এই ধারাতেই আমরা পেয়েছি অনেক গবেষণাধর্মী আধুনিক বাংলা গান এবং গানের শিল্পীকে। আর পেয়েছি বিপুল সংখ্যক বাংলা গানের শ্রোতা যারা হিন্দী গানের দৌরাত্মে নিজেদের সংস্কৃতিকে ভুলতে বসেছিলেন। জকিদের ভাষা নিয়ে তর্ক বিতর্কের উর্ধে থেকে একটা কথা বোধহয় সবাই স্বীকার করে নেবে যে, এফএম রেডিও গুলো বাংলাদেশের মানুষকে আরো বেশি প্রযুক্তিমুখী বিনোদনে আগ্রহী করে তুলেছে, যা উন্নয়নশীল দেশের জন্য আশীর্বাদই বলা যায়। কিন’ আফসোস এর কথা হচ্ছে এই চমৎকার সুবধিাটি শুধুমাত্র রাজধানী ঢাকা এবং বন্দর নগরী চট্টগ্রামের কয়েক বর্গমাইল এলাকার মধ্যে সীমাবদ্ধ করে রাখা হয়েছে। বিশ্বে ব্যবহারকারী সংখ্যার দিক থেকে সপ্তম ভাষা বাংলার অসংখ্য শ্রোতার কাছে এই বিপ্লবকে পৌছে দেয়ার জন্য কিছু মানুষ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তারই ধারাবাহিকতায় তৈরী হয়েছে দেশের প্রথম পূর্ণাঙ্গ ইন্টারনেট ভিত্তিক রেডিও স্টেশন লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম (www.lemon24.com ).


লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম কি ?

লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম একটি পূর্ণাঙ্গ বিনোদন ভিত্তিক রেডিও স্টেশন। এখানে বিনোদনের পাশাপাশি তথ্য বিপ্লবের প্রয়াসে সকলের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যও সমপ্রচার করা হয়। এখানে একাধিক নেট জকি তাদের মনন ও মেধা ব্যবহার করে শ্রোতাদের জন্য অনুষ্ঠান নির্মাণ করেন। এখানে প্রয়োজনীয় নিউজ আপডেটহ একটি নিউজ এর স্ক্রল আছে যেখানে সর্বশেষ সংবাদ এর স্ক্রল প্রচার করা হয়। এছাড়া সাইটটির নিচে আছে পছন্দের গানের অনুরোধ পাঠানোর সুযোগ। যেকোন মোবাইল ব্যবহারকারীরা এসএমএসের মাধ্যমেও ফছনে গানের জন্য অনুরোধ পাঠাতে পারেন। আরো আছে লেমন টুয়েন্টি ফোর সম্পর্কে তাৎক্ষণিক মতামত প্রাশের স্বাধীনতা। যা ওয়েবসাইটির নিচে স্ক্রল আকারে চলতে থাকে।

লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম এর লক্ষ্য

লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম এর মূল লক্ষ্য হচ্ছে দেশে ও দেশের বাইরে যেসকল বাংলাভাষী মানুষ আছেন, তাদের জন্য একটি সুস’ বিনোদন নিশ্চিত করার পাশাপাশি গণসচেতনতামূলক অনুষ্ঠান প্রচার করা। বেসরকারি পর্যায়ে বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় ২০০০ টেলিসেন্টার আছে। যে টেলিসেন্টারগুলো বাংলাদেশের প্রানি-ক মানুষদেরকে তথ্য সুবিধা দিয়ে থাকে। এবং ২০১১ সালের মধ্যে সারা দেশে প্রায় ৪০০০০ টেলিসেন্টার বা গ্রামীণ তথ্য কেন্দ্র গড়ে তোলার লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কাজ করে যাচ্ছেন। এধরনের তথ্য কেন্দ্রে প্রানি-ক মানুষেরা তাদের কৃষি সমস্যা, আইনি সমস্যাসহ যে কোন সমস্যার জন্য আসেন এবং ইন্টারনেটের মাধ্যমে তথ্যের ডাটাবেজ থেকে তাদরেকে তথ্য প্রদান করা হয়। ফলে প্রত্যেকটি টেলিসেন্টারেই ইন্টারনেট সংযোগ আছে। এই প্রানি-ক মানুষকে যদি সাটামাটা তথ্য না দিয়ে টেলিসেন্টারগুলোতে লেমন টুয়েন্টি ফোর এর অনুষ্ঠানমালা শুনানো হয়, তাহলে তারা বিনোদনের মাধ্যমে জীবন ধারনের প্রয়োজনীয় তথ্য সম্পর্কে জেনে যাবেন এবং তথ্য কেন্দ্রগুলোর প্রতিও মানুষের আকর্ষণ বৃদ্ধি পাবে। ফলে পুরো প্রক্রিয়াটি থেকে আরো বেশি ফল লাভ আশা করা যেতে পারে।

এছাড়া বাংলাদেশ সরকার ওয়াইম্যাক্স প্রযুক্তিকে দেশে প্রবেশের অনুমতি দিয়ে একটি যুগোপোযোগী সীদ্ধান- নিয়েছেন বলে আমরা বিশ্বাস করি। বাংলাদেশে বর্তমানে ইন্টারনেটের যে স্পীড পাওয়া যায় সেটি অনেকটা কচ্ছপের গতির মতই ধীর। কিন’ এই প্রযুক্তি চালু হলে ইন্টারনেটের গতি বহুগুণ বাড়বে যেটি ইন্টারনেটকে আরোবেশি জনপ্রিয় করে তুলবে এবং কমবেশি দেশের সব অঞ্চলের মানুষই ইন্টারনেট সংযোগের আওতায় এসে পড়বেন। এই সকল মানুষকে একটি সুস’ বিনোদনের মাধ্যমে এবং বিনোদনের মাঝে মাঝে গণ সচেতনতামূলক তথ্য সরবারহ করে দেশে একটি সামগ্রিক অর্থে একটি নীরব তথ্য বিপ্লব ঘটানো সম্ভব ।

লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম এর উদ্দেশ্য

লেমন টুয়েন্টি ফোর নির্মানের একটি বড় উদ্দেশ্য হচ্ছে সারা বিশ্বের বাংলাভাষীদের জন্য সুস’ শ্রুতি নির্ভর বিনোদন নিশ্চিত করা। ২০০৬ সালের আগে বাংলাদেশে ২ টি মাত্র রেডিও স্টেশন ছিলো। একটি বাংলাদেশ বেতার এবং অন্যটি রেডিও মেট্রোওয়েভ। এধরনের রেডিওগুলোর মূল শ্রোতা ছিলো বাংলাদেশের গ্রামীণ জনগোষ্ঠি। কিন’ বর্তমানে এফএম রেডিও স্টেশন নির্মিত হওয়ায় বাংলাদেশে রেডিও শ্রোতার একটি ব্যাপক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। কারন এফএম রেডিও স্টেশনগুলো গতানুগতিক উপায়ে অনুষ্ঠান নির্মাণ না করে নির্মাণ শৈলীতে যেমন পরিবর্তন এনেছে তেমনি অনুষ্ঠানের বৈচিত্যতাও তাদের জনপ্রিয়তার একটি প্রধান উপজিব্য বিষয়। কিন’ এধরনের রেডিও স্টেশন শুধুমাত্র ঢাকা ও তার আশেপাশে ১০০ কিমি পর্যন- বিস-ৃত। ফলে ঢাকা এবং ঢাকার আশেপাশে কয়েকটি জেলায় এর অনুষ্ঠান শোনা সম্ভব হয়। কিন’ লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম এর অনুষ্ঠান সমূহ পৃথিবীর যেকোন প্রান- থেকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে শোনা যাবে।

কারা শুনবেন লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম

মূলত ইন্টারনেট ব্যবহারকারী যে কোন ধরনের বাংলাভাষি মানুষ লেমন টুয়েন্টি ফোর শুনতে পারেন। তবে অনুষ্ঠান নির্মানের ক্ষেত্রে মূলত বাংলাদেশের প্রানি-ক মানুষ তথা যুব সমপ্রদায়কে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। এবং বিশ্বের বুকে ছড়িয়ে থাকা সকল বাংলাদেশি মানুষ লেমন টুয়েন্টি ফোর ডট কম থেকে তাদের প্রয়োজনীয় মানসিক খোরাক সংগ্রহ করতে পারবেন। এছাড়া বাংলাদেশের সকল টেলি সেন্টার বা ইনফরমেশন সেন্টার এ ইন্টারনেটের মাধ্যমে এই রেডিও শোনা যেতে পারে। অল্পকিছুদিনের ভেতরে যেকোন মোবাইল থেকে লেমন টুয়েন্টি ফোর শোনার জন্যও প্রয়োজনীয় ব্যবস’াগ্রহণ করা হচ্ছে। ফলে বাংলাদেশের যে বিপুল সংখ্যক লোক মোবাইল ব্যবহার করেন, তাদের বিনোদনকেও নিশ্চিত করছে লেমন টুয়েন্টি ফোর।

ওয়েব সাইটটির ঠিকানা
www.lemon24.com

About animesh chandra

একটি উত্তর দিন