ক্যামেরা প্রিয়দের – সনির নতুন থ্রি-ডি ক্যামেরা

ইলেকট্রনিক জায়ান্ট সনি এবার বের করলো নতুন সিঙ্গেল লেন্স ক্যামেরা যার মাধ্যমে থ্রি-ডি ছবি তোলা সম্ভব হবে। প্রচলিত থ্রিডি ক্যামেরায় সাধারণত দুটি ভিউ ফাইন্ডারে ফটোগ্রাফার তার দুই চোখ রেখে ছবি তোলেন কিন্তু এই থ্রি-ডি ক্যামেরায় একটি ক্যামেরাতেই ছবিকে প্রতিফলক আয়নার সাহায্যে দুই ভাগে ভাগ করে দুটি সেন্সরে রেকর্ড করা হবে। এর ফলে প্রচলিত থ্রিডি ক্যামেরার চেয়ে এই ক্যামেরায় ছবি সনির ভাষায় আরো ‘স্মুদ’ হবে। খবর বিবিসির।

জানা গেছে, সনির এই থ্রি-ডি ক্যামেরাটি জাপানের টোকিওতে ‘সি-টেক’ ইলেকট্রনিক শোতে প্রথমবারের মত জনসমক্ষে উন্মুক্ত করা হবে।

সনি জানিয়েছে, এই ক্যামেরায় তোলা থ্রি-ডি ইমেজগুলো বিশেষ ভাবে তৈরি পোলারাইজড গ্লাসে দেখা যাবে। এই বিশেষ গ্লাসটি ছাড়া থ্রি-ডি ইমেজ দেখা সম্ভব নয়।

সনির বরাতে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, বিশেষ ভাবে তৈরি এই ক্যামেরা স্পোর্টস ইভেন্টের জন্য বেশি কার্যকর। কারণ হিসেবে তারা জানায়, এই ক্যামেরায় অনেক দ্রুত ছবি তোলা যায় যা স্পোর্টস ইভেন্ট কভার করার জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

পাশাপাশি সনি জানিয়েছে, এই সপ্তাহে অনুষ্ঠিত ফুটবল খেলা সম্পূর্ণ নতুন টেকনোলজির থ্রি-ডি ফরমেটে ধারন করবে। এই উদ্দেশ্যে পুরো ফুটবল মাঠকে কভার করতে তিনটি ক্যামেরা বসাবে তারা। এই তিনটি ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিওগুলোকে একটি বিশেষ সফটওয়্যারের মাধ্যমে থ্রি-ডি ভিডিও ফাইলে রূপান-র করা হবে।

সনির জেনারেল ম্যানেজার জন স্টোন এই বিষয়টিকে ব্যাখ্যা করে বলেন, এক একটি ক্যামেরা এক তৃতীয়াংশ কভার করবে। তিনটি ক্যামেরাই একই ফোকাল লেংথে সেট করা থাকবে। ফলে তিনটি ভিডিওর সমন্বয় করা সম্ভব হবে। অত্যাধুনিক প্রযুক্তির কল্যাণে প্রতিটি শটের ডেপথ এবং পিক্সেল খুব দ্র”ত বিশ্লেষণ করে একটি থ্রি-ডি ভিডিও চিত্র তৈরি করবে।

জন স্টোন আরো বলেন, তিনি এখনো পুরোপুরি নিশ্চিত নন, আলোচিত এই প্রযুক্তিটি এখন যে পর্যায়ে আছে তা পুরো ফুটবল ম্যাচ কভার করার সামর্থ্য অর্জন করতে পেরেছে কি না, তবে তিনি আশাবাদী যে আগামী ২০১০ সাল থেকে স্পোর্ট ইভেন্টগুলোকে লাইভ থ্রি-ডি চেহারাতেই দেখা যাবে।

About কাবজাব