পিএইচপি (PHP) টিউটোরিয়াল – ৩

আগের দুইটি টিউটোরিয়ালে আমরা দেখলাম পিএইচপি কি এবং এর সৃষ্টির ইতিহাস। আজকের টিউটোরিয়ালে আমরা জানব এত এত ল্যাঙ্গুয়েজ থাকতে আমরা কেন পিএইচপি ব্যবহার করবো?

সহজেই কনফিগার করা যায়ঃ পিএইচপিতে ডেভেলপ করার জন্য বিশাল সময় ধরে এর কনফিগারেশন করতে হয়না। খুব অল্প সময়ে এইটা ডেভেলপমেন্ট ইনভায়রনমেন্ট কনফিগার করা যায়।

সহজেই বহনযোগ্যঃ অনেকেরই হয়তো নাক সিটকে উঠেছে। বহনের কি ব্যপার এইখানে থাকতে পারে। পিএইচপি দিয়ে ডেভেলপ করার প্রাইমারী ইনস্টলেশান ফাইলগুলো খুব সহজেই পেনড্রাইভে নিয়ে নেওয়া যায়। কারন এগুলো সাইজে খুবই ছোট।

দ্রুত ডেভেলপমেন্টঃ ইউজার ইন্টারফেসের জন্য এইচটিএমএল কে আলাদা করেই পিএইচপি দিয়ে ডেভেলপ করা যায়। পরে প্রয়োজন মতো এইচটিএমএল যে যায়গায় প্রয়োজন সেখানে পিএইচপি কোড এ্যাড করে দিলেই হলো।

ওপেনসোর্সঃ পিএইচপির সবচেয়ে বড় সুবিধাটি মনে হয় যে এটি ওপেন সোর্স। অর্থাৎ ফ্রী পিএইচপি ব্যবহার সহ এর সোর্স কোডও পাবেন। ফ্রী হলেও পিএইচপি দিয়ে যে কেউ বাণিজ্যিক ভাবেও এটি ব্যবহার করতে পারেন। যেখানে এখনো অনেক ল্যাঙ্গুয়েজ আছে যা ব্যবহার করলে অর্থের প্রয়োজন। সেই সাথে দরকার অথরিটির অনুমতি। এইদিক দিয়ে পিএইচপির কোন ঝামেলা নেই। গুগলে সার্চ দিলেই হাজার হাজার হেল্প কোড। ইনস্টলেশান প্রয়োজনীয় জিনিসগুলোও পাবেন বিনামূল্যে। রয়েছে বহুসংখ্যক ফোরাম।

পারফরম্যান্সঃ ASP এর সাথে তুলনা করলে PHP এর পারফরম্যান্স অনেক ভালো। PHP এর সাথে ডাটাবেইজ MySQL এর কম্বিনেশানও ব্যপক পারফরমেন্স দিয়ে থাকে।

About

৪ comments

  1. আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ এরকম গুরুত্বপূর্ন টিউটোরিয়াল পর্ব শুরু করার জন্য।
    চালিয়ে জাবেন আশাকরি সাথে আছি।

  2. আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ এরকম গুরুত্বপূর্ন টিউটোরিয়াল পর্ব শুরু করার জন্য।
    চালিয়ে জাবেন আশাকরি সাথে আছি।

  3. জ্বি জ্বি সাথে আছি। পরের পর্ব দিন… প্লিজ…

  4. জ্বি জ্বি সাথে আছি। পরের পর্ব দিন… প্লিজ…

একটি উত্তর দিন