:) মেডিটেশন: ইতিবাচক ভাবনা B-)

কেমন আছেন?
ভালো আছি!

এই ভালো আছি বলাটা যেমন ভদ্রতা তেমনি একে আমি মেডিটেশন হিসেবে দেখি। আপনি অযথা আপনার সমস্যা, দুশ্চিন্তা বা মন খারাপ এ জাতীয় নেতিবাচক প্রভাব দিয়ে অপরকে সংক্রমিত করছেন না।

আপনি যখন বলছেন, ভালো আছি, তখন মৃদু একটি হাসির রেখা বয়ে যাচ্ছে মুখে। আর তা যে দেখবে সেও কিছুটা হলেও ভালো লাগার অনুভূতিতে সংক্রমিত হবে। এটাও একধরণের হিপনোটিজম এবং মেডিটেশন। ইতিবাচক ভাবনা।

এই ইতিবাচক মনোভাবটি আপনার মনে অটোসাজেশনের মতো কাজ করবে। আপনি চাইছেন না অপরকে জানাতে আপনার মন খারাপের কথা, অযথা নিজের সমস্যাও শেয়ার করতে চাইছেন না। সবাই তো কোনো না কোনো সমস্যায় ভূগছে আপনারটি শোনার হয়তো সময় নেই।

আর আপনি যখন ভালো থাকার ভাণ করছেন, অনেক সময় তা আপনাকে ভালো করেও দিচ্ছে। মনোবল অসম্ভবকে সম্ভব করে তোলে।

গায়ক, গীতিকার ও গীটারিস্ট এবং ইটালিয়ান আইকন [link|http://en.wikipedia.org/wiki/Julio_Iglesias|জুলিও ইগলেসিয়াস] এর নাম শুনেছেন?

কলেজ জীবনে টগবগে যুবক জুলিও ফুটবলার ছিলেন। কিন্তু এক গাড়ি দুর্ঘটনায় তার কোমড় থেকে নিচের পুরো অংশ অবশ হয়ে যায়। জীবনের আশা ছেড়ে দেয়া এক যুবকে পরিণত হন তিনি। হাসপতালের বেড’এ তাকে তার নার্স একটি গীটার দেয়। গীটারটির তারে দু’একবার হাত দিয়ে সেই শব্দের প্রতি ভালোলাগা অনুপ্রেরণা তাকে নিজের শরীরের উপর নিয়ন্ত্রণ আনতে শেখায়।

তিন বছর তিনি এভাবে পক্ষাঘাতগ্রস্ত ছিলেন প্যারাপ্যারেক্সিয়াতে। আর এই গীটার অনুশীলন তাকে কেবল সারিয়েই তোলে না। তিনি জগদ্বিখ্যাত শিল্পীতে পরিণত হন। এমনকি তার ৮৪ বছর বয়স্ক বাবার কাছে প্রমিজ করে তিনি ৩৫বছর আগে অসম্পূর্ণ রাখা আইন বিষয়ের ডিগ্রি সম্পূর্ণ করেন ২০০১ সালে। ম্যাক্সিম ম্যাগজিন তাকে শীর্ষ দশ লিভিং সেক্স লেজেন্ড এর ৪নম্বরে স্থান দিয়েছিলো। যতদূর মনে পড়ে তার নামে একটি সুগন্ধিও আছে ইটালি’তে।

তাই ইতিবাচক ভাবনা আমাদের সকলের মঙ্গল নিয়ে আসতে পারে এমনটা আমার মনে হয়। ইতিবাচক ভাবনার সাথে সাথে ইতিবাচক কর্মও করতে হবে বৈকি। 🙂

ভালো থাকুন 🙂

About

একটি উত্তর দিন