২৯ নারীকে সম্মাননা দিল এটুআই

২৯ নারীকে সম্মাননা দিল এটুআই

a2iনারী দিবস উপলক্ষে অগ্রগামী নারীদের সম্মাননা দিয়েছে অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই)। শিক্ষক, সরকারি কর্মকর্তা, উদ্যোক্তা, জয়িতা ও সাহসী নারী এই পাঁচ ক্যাটাগরিতে সোমবার ২৯ জন নারীকে সম্মাননা দেয় ডিজিটাল বাংলাদেশ বাংস্তবায়নে সরকারের অন্যতম প্রকল্প এটুআই। প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের করবী হলে সম্মাননা অনুষ্ঠানে এটুআই প্রোগ্রামের জেন্ডার সংক্রান্ত রূপরেখা উদ্বোধন করা হয়।
এছাড়া নারীদের নিয়ে নির্মিত প্রামণ্য চিত্র, ছবি প্রদর্শনী এবং স্ব-স্ব ক্ষেত্রে সাহসী নারীদের গল্প তুলে ধরা হয়।
এতে জেন্ডার নিয়ে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করে এটুআই প্রোগ্রামের লোকাল ডেভলপমেন্ট এক্সপার্ট সুপর্ণা রায়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম।
সম্মাননাপ্রাপ্ত নারীদের মধ্যে বিভাগীয় কমিশনার মনোনীত শ্রেষ্ঠ সরকারি নারী কর্মকর্তা এবং উদ্যোক্তারা হলেন, বরিশাল বিভাগের গৌরনদীর সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানিয়া আফরোজ এবং বানারীপাড়ার সলিয়াবাকপুর ইউডিসির নাদিরা।
চট্টগ্রামের উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুমানা রহমান শম্পা এবং ফেনীর ধর্মপুর ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের রহিমা আক্তার।
রংপুরের সহকারী কমিশানার (আইসিটি) উম্মে রুমানা তুয়া এবং দিনাজপুর বিরলের মঙ্গলপুর ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের মোছা. শিল্পী আক্তার খাদিজা।
সিলেটের গোপালগঞ্জ সহকারী কমিশনার (ভূমি) মৌরীন করিম এবং হবিগঞ্জ চুনারঘাটের ২ নং আহম্মদাবাদ ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের বেগম কল্পনা কানু।
ঢাকার নরসিংদী পলাশের উপজেলা নির্বাহী অফিসার বেগম আইরিন ফারজানা এবং গোপালগঞ্জ মকসুদপুরের ননীক্ষীর ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের লিপি দাস।
রাজশাহী বিভাগে পাবনার সিনিয়র সহকারি কমিশনার বেগম শেহেলী লায়লা এবং সিরাজগঞ্জ সায়দাবাদ ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের মোছা. রুমি খাতুন।
খুলনার কুষ্টিয়ার খোকসার উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেবেকা খান এবং মেহেরপুর সদরের কুতুবপুর ইউনিয় পরিষদের মোছা. রেবেকা খাতুন।
শিক্ষক ক্যাটাগরিতে ঢাকার ধানমণ্ডি সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ইসমত আরা মমতাজ, সিলেটের হবিগঞ্জের লামাতসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শর্বানী দত্ত, চট্টগ্রামের ওছখালিয়া আলিয়া মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাছুমা আক্তার।
রয়েছেন বরিশালের জেলা স্কুলের পূরবী আক্তার, রংপুরের কারমাইকেল কলেজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাহফুজা সুলতানা, রাজশাহীর বগুড়া ক্যান্টমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাবরিনা জেরিন, খুলনার বইতপুর এমইউ উচ্চ বিদ্যালয়ের লাভলী মল্লিক।
মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় মনোনীত বিভাগীয় পর্যায়ে নির্বাচিত জয়িতারা হলেন, খুলনার ফেরদৌস আলী, শ্যামলী বালা রায়, লিপি বেগম।
ছয়জন সাহসী নারীরা হলেন রেল চালক সালমা খাতুন, পর্বতারোহী ওয়াসফিয়া নাজরীন, বেসিস অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত ফ্রিল্যান্সার তানজীন আক্তার মুনমুন, প্রমীলা ক্রিকেটার শাকিলা জাকির জেসী, প্রথম প্যারাট্রুপার ক্যাপ্টেন জান্নাতুল ফেরদৌস এবং সাংবাদিক নুরুন্নাহার উইলি।
এটুআই প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) কবির বিন আনোয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তারিক-উল-ইসলাম, ইউএনডিপির কান্ট্রি ডিরেক্টর পলিন ট্যামেসিস এবং ইউএসএআইডির মিশন ডিরেক্টর জেনিনা জারুজেলেস্কি।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন