২৫ মে থেকে বেসিসের বাণিজ্যিক সফটওয়্যারের প্রদর্শনী

২৫ মে থেকে বেসিসের বাণিজ্যিক সফটওয়্যারের প্রদর্শনী

বিদেশি সফটওয়্যারের তুলনায় বাংলাদেশি সফটওয়্যারের মান কোনো অংশেই কম নয়। আন্তর্জাতিক মাসের এই সফটওয়্যারগুলো রপ্তানি হলেও বাংলাদেশে দেশি সফটওয়্যারের কদর তুলনামূলকভাবে কম। অনেক প্রতিষ্ঠান দেশি সফটওয়্যার সম্পর্কে অবগত না থাকার কারণে বিদেশি সফটওয়্যার ব্যবহার করেন। তাই এই বিষয়ে সবাইকে জানানো ও সচেতনতা তৈরি প্রয়োজন। এরই লক্ষ্যে ২ দিনব্যাপি বাণিজ্যিক সফটওয়্যার প্রদর্শনীর (বিজনেস সফটওয়্যার শোকেস) আয়োজন করেছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস)। বুধবার বেসিক সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

BASIS Press Meet

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল (আইবিপিসি)-এর সহায়তায় আগামী ২৫ ও ২৬ মে বেসিস অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে এই প্রদর্শনী। দুদিনব্যাপী এই প্রদর্শনীতে কেবলমাত্র বাণিজ্যিক সফটওয়্যার প্রদর্শন করা হবে। বেসিস বছর জুড়ে প্রায় প্রতি মাসেই এ ধরনের আয়োজন করতে যাচ্ছে। এ আয়োজনের মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে- আসুন, তুলনা করুন এবং বেছে নিন (Come, Compare & Choose)। সংবাদ সম্মেলনে বেসিস এর কোষাধ্যক্ষ এবং এ আয়োজনের আহ্বায়ক উত্তম কুমার পাল সাংবাদিকদের এ কথা জানান। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বেসিস-এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির, বেসিস লোকাল মার্কেট (প্রাইভেট এন্ড কর্পোরেট) ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান শেখ কবির আহমেদ, কমিটির কো-চেয়ারম্যান গোপাল দেবনাথ, কমিটির সদস্য মুস্তাফিজুর রহমান সোহেল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বক্তাগণ উল্লেখ করেন ইতিপূর্বে বেসিস এডুকেশন ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার , হেলথকেয়ার ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার এবং রিয়েল এস্টেট ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার এর উপর ভিত্তি করে তিনটি একদিনের প্রদর্শনী আয়োজন করে উল্লেখযোগ্য সাড়া পাওয়া গেছে।

সেই ধারাবাহিকতায় বেসিস এ প্রদর্শনীর আয়োজন করছে। প্রদর্শনীতে ১৩টি বেসিস সদস্য কোম্পানী যারা অ্যাকাউন্টিং সফটওয়্যার তৈরি ও বাজারাজাত করে থাকে তারা অংশগ্রহণ করছে। প্রদর্শনীতে আগত দর্শনার্থীগণ একটা নির্দিষ্ট জায়গায় একই ধরনের সফটওয়ারের তুলনামূলক বৈশিষ্ট্য প্রত্যক্ষ করা এবং এর প্রতিযোগিতামূলক মূল্য সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারনা লাভ করতে সক্ষম হবে বলেও বক্তারা উল্লেখ করেন।

শনিবার, সকাল ১১ টায় আইসিএবি’র সভাপতি মো: আবদুস সালাম, এফসিএ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন। প্রদর্শনী চলবে সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত এবং এটি সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

আগামী এক বছরে গার্মেন্টস অ্যান্ড টেক্সটাইল, এইচ আর অ্যান্ড পে-রোল, ইআরপি অ্যান্ড ইন্টিগ্রেটেড বিজনেস সলিউশনস, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট হোস্টিং এন্ড সার্ভিস, এডুকেশন সফটওয়্যার, হসপিটাল ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার, রিয়েল এস্টেট সফটওয়্যার, সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার এবং ই-কমার্স বিষয়ে এসব প্রদর্শনী আয়োজনের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

বেসিস-এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির বলেন, বিদেশি সফটওয়্যার আমদানির ক্ষেত্রে বর্তমানে কোনো ভ্যাট/ট্যাক্স দিতে হয় না। কিন্তু নীতিমালায় সুনির্দিষ্টভাবে উল্লেখ না থাকায় অনেক ক্ষেত্রে দেশি সফটওয়্যার কিনতে ভ্যাট দিতে হয়। তাই সরকারের প্রতি আহবান থাকবে এবারের বাজেটে যেনো এ বিষয়টি গুরুত্ব দেওয়া হয়। এছাড়া আগামী বজেটে বেসিসের চারটি প্রস্তাবনা উল্লেখ করা হয়।

About বদরুদ্দোজা মাহমুদ তুহিন

একটি উত্তর দিন