স্তন ক্যান্সার সচেতনতায় মোবাইল অ্যাপ

স্তন ক্যান্সার সচেতনতায় মোবাইল অ্যাপ

checkপৃথিবীর সব দেশের নারীর জন্য স্তন ক্যান্সার একটি নীরব ঘাতক। হিসাব অনুযায়ী বাংলাদেশে প্রতি বছর নতুন করে ২০ হাজারেরও বেশি নারী স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়। বিশেষজ্ঞরা বলেন, ৯০% ক্ষেত্রেই সচেতনতা ও সময়মত চিকিৎসা বাঁচিয়ে তুলতে পারে রোগীকে এবং দিতে পারে সুস্থ্ স্বাভাবিক জীবন।
স্তন ক্যান্সারের লক্ষণগুলো যত দ্রুত ধরা পরবে ততই বেশি সুযোগ পাওয়া যাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও চিকিৎসার; অর্থাৎ বাড়বে সুস্থতার সম্ভাবনাও! বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, মূলত সচেতনতার অভাবে ক্যান্সার অনেক দেরিতে ধরা পরে যার কারণে নিরাময়ের সম্ভাবনাও অনেক কমে যায়। এর কার্যকর প্রতিকারের জন্য সময়মত স্তন ক্যান্সারের লক্ষণগুলো বুঝতে পারা খুবই জরুরি।
বিশ্বজুড়ে অক্টোবর মাস স্তন ক্যান্সার সচেতনতার মাস হিসেবে পরিচিত। স্তন ক্যান্সার সচেতনতায় সাহায্য করার লক্ষ্যে কালারস এফএম ১০১.৬ একটি মোবাইল অ্যাপ চালু করেছে, যার নাম চেকমেট।
বাংলাদেশে এখনও অনেক মানুষই স্তন ক্যান্সার নিয়ে সহজ ভাবে কথা বলতে পারেন না, ডাক্তার দেখাতেও লজ্জাবোধ করেন।আর এ কারণে দিন দিন বেড়েই চলছে স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি। অ্যাপটির সাহায্যে নারীরা ঘরে বসেই স্তন ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণ সম্পর্কে জানতে পারবেন এবং এর মাধ্যমে নিজেই নিজের স্তন পরীক্ষা করতে পারবেন।
একজন নারী তিনটি সহজ ধাপে, স্তনে চাকা বা স্তনের চামড়ার পরিবর্তনের মতো স্তন ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণগুলো ঘরে বসেই চেক করতে পারেন। এছাড়াও প্রয়োজনে ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেয়ার সুবিধাও পাওয়া যাবে এই অ্যাপসের মাধ্যমে। আর রিমাইণ্ডার সেট করে প্রতিমাসে সেলফ চেকিং; এই অ্যাপটির একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার। যেকোন অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের গুগল প্লে-স্টোর এ চেকমেট ব্রেস্ট ক্যান্সার (CheckMate Breast Cancer) লিখে সার্চ করে ডাউনলোড করা যাবে।
বিশেষজ্ঞরা বলেন, ত্রিশ বছরের বেশি বয়স হলে নিয়মিত নিজ নিজ স্তন পরীক্ষা করা উচিৎ। সব নারীদের উচিৎ প্রতিমাসে নিয়ম করে একবার সেলফ্ এক্সমিন করা এবং এ ধরনের কোন লক্ষণ প্রকাশিত হলে অবশ্যই ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া।
স্তন ক্যান্সার নিয়ে নারীদের মধ্যে কিছুটা হলেও সচেতনতা বেড়েছে যদিও চিকিৎসা সুবিধা এখনও অপ্রতুল।তবে প্রাথমিক পর্যায়ে রোগ নিরূপণ হলে এবং চিকিৎসা করালে ব্রেস্ট ক্যান্সার নিরাময় সম্ভব।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন