সব প্লাটফর্মেই মাইক্রোসফটের স্মার্টওয়াচ

সব প্লাটফর্মেই মাইক্রোসফটের স্মার্টওয়াচ

প্রযুক্তি বাজারে শীর্ষ তিন অপারেটিং সিস্টেম অ্যাপলের আইওএস, গুগলের অ্যান্ড্রয়েড এবং মাইক্রোসফট উইন্ডোজ– সবগুলোই ব্যবহার করা যাবে মাইক্রোসফটের স্মার্টওয়াচে। হৃদস্পন্দন মনিটরিংয়ের ফিচার থাকবে ডিভাইসটিতে। আর ব্যাটারির এক চার্জে চলবে দুই দিন।

মাইক্রোসফটের স্মার্টওয়াচ প্রযুক্তির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রের বরাত দিয়ে ফোর্বস জানিয়েছে, হার্টরেট মনিটর করার জন্য মাইক্রোসফটের এক্সবক্স কাইনেক্ট ইঞ্জিনিয়ারদের ব্যবহৃত প্রযুক্তিও রয়েছে ডিভাইসটিতে।

মাইক্রোসফটের মুখপাত্রের কাছ থেকে এ সংশ্লিষ্ট কোনো প্রশ্নের উত্তর মেলেনি বলে জানিয়েছে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট ম্যাশএবল। হার্টরেট মনিটর এবং ফিটনেস ট্র্যাকিং ফিচার আছে এমন একটি ডিভাইসের কথা বলা হয়েছিল প্রতিষ্ঠানটির ২০১২ সালের এক পেটেন্ট আবেদনে।

এদিকে স্যামসাং নতুন ফিটনেস রিস্টব্যান্ড ‘সিমব্যান্ড’ দেখানোর এক দিন পরই ফোর্বসের প্রতিবেদনে উঠে এলো মাইক্রোসফট স্মার্টওয়াচের ফিচারগুলো। প্রতিবেদন অনুযায়ী, গ্রীষ্মের কোনো এক সময়ে স্মার্টওয়াচটি দেখাতে পারে মাইক্রোসফট।

এদিকে ওয়্যারএবল গ্যাজেট নিয়ে গোপনীয়তা বজায় রাখলেও ৯ ইঞ্চির চেয়ে ছোট পর্দার ডিভাইসে উইন্ডোজ ওএস বিনা পয়সায় ব্যবহার করা যাবে বলে ঘোষণা দিয়েছে মাইক্রোসট, এর মধ্যে আছে স্মার্টওয়াচের মতো ওয়্যারএবল ডিভাইসও।

সূত্র: বিডিনিউজ২৪

About কমজগৎ ডেস্ক

একটি উত্তর দিন