সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক হিসেবে স্বীকৃতি পেল অগমেডিক্স

সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক হিসেবে স্বীকৃতি পেল অগমেডিক্স

palokসফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক (এসটিপি) হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে অগমেডিক্স বাংলাদেশ ভবন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশে অগমেডিক্সের এক বছর উদযাপনকালে আনুষ্ঠানিকভাবে এ তথ্য জানানো হয়।
এসময় অগমেডিক্স ভবনে অনুষ্ঠিত জমকালো আয়োজনে গুগল গ্লাস ভিত্তিক বিশ্বের প্রথম ও সর্ববৃহৎ এ স্টার্টআপ কোম্পানিটির নতুন লোগো উন্মোচন করা হয় এবং তাদের ভবনের নতুন ব্র্যান্ডিংয়ের বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হয়।
অগমেডিক্স বাংলাদেশে ম্যানেজিং ডিরেক্টর আহমাদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।
তিনি বলেন, ‘আমরা অগমেডিক্স ভবনকে ‘সফটওয়্যার টোকনোলজি পার্ক’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছি। দেশে বৈদেশিক বিনিয়োগে আগ্রহী করতে সরকারের উদ্যোগ হিসেবে অগমেডিক্স বাংলাদেশ একটি মডেল উদাহরণ।’
তিনি আরও বলেন, “অগমেডিক্স বাংলাদেশে প্রায় ৭ হাজার তরুণ কর্মী নিয়োগের সিদ্ধান্তটি সত্যিই প্রসংশনীয়। আইসিটি মন্ত্রণালয় এলআইসিটি প্রোগ্রামের মাধ্যমে অগমেডিক্সের জন্য প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষিত জনবল সরবরাহ করতে ইতিমধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।’
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘অগমেডিক্সের প্রতিষ্ঠাতা ইয়ান শাকিল একজন বাংলাদেশি ভেবে আমি খুবই আনন্দিত। তাঁর এই উদ্যোগে বাংলাদেশ একটি স্ট্রাটেজিক কান্ট্রি হিসেবে মূল্যায়ন পেয়েছে।’
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট কাজী মো. সালাহ্উদ্দিন। ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে পর্যায়ক্রমে ও শিঘ্রই অগমেডিক্স বাংলাদেশে প্রায় ৭ হাজার নতুন কর্মী নিয়োগ করা হবে বলে অনুষ্ঠানে জানানো হয়।
অগমেডিক্সের সিইও ও কো-ফাউন্ডার ইয়ান শাকিল এবং প্রেসিডেন্ট ও কো-ফাউন্ডার পেলু ট্র্যান গুগল গ্লাস ভিত্তিক বিশ্বের প্রথম ও সর্ববৃহৎ এ স্টার্টআপ কোম্পানির স্বপ্নদ্রষ্টা। সান ফ্রানসিসকো ভিত্তিক এ কোম্পানিটি ভারত ও বাংলাদেশে বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং (বিপিও) হিসেবে ব্যবসা স্থাপন ও পরিচালনা করছে। কোম্পানিটি দ্রুত বিশ্বব্যাপি তাদের ব্যবসা সম্প্রসারণ করছে। তথ্য প্রযুক্তি ও যোগাযোগ মন্ত্রণালয় এবং হাই টেক পার্ক অথরিটির সহযোগিতায় পর্যায়ক্রমে ও শিঘ্রই প্রায় ৭ হাজার নতুন কর্মী নিয়োগ দিবে অগমেডিক্স বাংলাদেশ।
শ্যাম সুন্দর সিকদার বলেন, “আমরা বাংলাদেশে আইসিটি খাতে দ্রুত উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। সরকারির পাশাপাশি বেসরকারি সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক প্রতিষ্ঠা আইসিটি খাতকে আরো গতিশীল করছে। আইসিটি মন্ত্রণালয় ও হাই টেক পার্ক অথরিটি অগমেডিক্সেম মতো উদ্যোগকে সবসময় উৎসাহিত করবে।’
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাফুফে প্রেসিডেন্ট কাজী সালাহ্উদ্দিন বলেন, ‘বাংলাদেশে অগমেডিক্সের এ বিনিয়োগ সত্যিই প্রশংসনীয়। অল্প সময়ের মধ্যে একই আইটি কোম্পানিতে প্রায় ৭ হাজার শিক্ষিত জনবলের চাকরিক্ষেত্র সৃষ্টি হওয়া আমাদের জন্য গর্বের।’
অগমেডিক্স বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর আহমাদুল হক বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশ থেকে দেশের গন্ডি পেরিয়ে প্রযুক্তিনির্ভর সেবা দিয়ে যাচ্ছি এবং ব্যাপক সন্তোষজনক মতামত পাচ্ছি।” তিনি আরও বলেন “অগমেডিক্স দ্রুতই বিশ্বব্যাপী ব্যবসা সম্প্রসারণ করে যাচ্ছে এবং আইসিটি মন্ত্রণালয় ও হাই টেক পার্ক অথরিটির সহয়াতায় আমরা পর্যায়ক্রমে ও দ্রুত আমাদের কোম্পানিতে প্রায় ৭ হাজার দক্ষ জনবল নিয়োগ দেয়া হবে।’

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন