লন্ডনে ই-বাণিজ্য মেলা সম্পর্কিত আন্ত:মন্ত্রনালয় মতবিনিময় সভা

লন্ডনে ই-বাণিজ্য মেলা সম্পর্কিত আন্ত:মন্ত্রনালয় মতবিনিময় সভা

লন্ডনে অনুষ্ঠিতব্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রণালয় ও কমজগৎ আয়োজিত ইউকে-বাংলাদেশ ই-বাণিজ্য মেলা সফল করার লক্ষ্যে রোববার বিকেলে আগারগাঁওস্থ বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) ভবনে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা বিসিসি’র নির্বাহী পরিচালক এসএম আশফাক হুসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের সচিব নজরুল ইসলাম খান।

প্রধান অতিথি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের সচিব নজরুল ইসলাম খান বলেন, মেলায় সেমিরারসহ অনেক সহযোগি আয়োজন থাকবে। ফলে লোকসমাগম হবে। এছাড়া সেখানকার বাংলাদেশি ৩টি টেলিভিশন চ্যানেলে অন্তত ৩ ঘন্টার করে লাইভ প্রোগ্রাম, বিজ্ঞাপণ চালানো হবে। তাছাড়া দেশে ইতিমধ্যেই প্রচারনার কাজ শুরু করেছে কমপিউটার জগৎ। যদি সম্ভব হয় তাহলে প্রধানমন্ত্রীকে দিয়ে মেলাটি উদ্বোধনের চেষ্টা করা হবে। এছাড়া মাননীয় মন্ত্রীকে নেওয়ার জোর প্রচেষ্টা করা হবে। পাশাপাশি যুক্তরাজ্যের সংশ্লিষ্ঠ কোনো মন্ত্রীকে দিয়ে উদ্বোধন করাতে পারলে ভাল হবে।

uk bd e-commerce fair

বিসিসি’র নির্বাহী পরিচালক এসএম আশফাক হুসেন বলেন, দেশের সম্ভাবনাময় ই-বাণিজ্য সেক্টরকে এগিয়ে নিয়ে যেতে দেশের বাইরে লন্ডনে ই-বাণিজ্য মেলা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে আগেও কয়েকটি মতবিনিময় সভা হয়েছে। আজকের এই আন্তঃমন্ত্রনালয়ের সভায় মূলত মেলার অগ্রগতি, প্রধান অতিথি নির্বাচন, অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান নির্বাচন, ফান্ড সংগ্রহ ও ভিসা সংগ্রহ নিয়ে আলোচনা হবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম-সচিব শ্যামা প্রসাদ বেপারী বলেন, ই-বাণিজ্যে আমরা পাখা মেলে দিয়েছি। সফলভাবে দুইটি ই-বাণিজ্য মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ই-বাণিজ্য সফল হবেই, কারণ হরতাল কিংবা অন্য কোনো সমস্যা থাকলেও ই-বাণিজ্যের মাধ্যমে ঘরে বসেই কেনাকাটা করতে পারি। আমরা নিশ্চিতভাবে এগিয়ে যাবো। তাই সামনের ই-বাণিজ্য মেলাগুলোতে আমাদের সকলকে এগিয়ে আসা উচিত।

অংশগ্রহণকারীদের প্রশ্নের জবাবে কমজগৎ টেকনোলজিসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল ওয়াহেদ তমাল বলেন, মেলার এখনো পর্যন্ত ভেন্যু নির্ধারণ না হলেও প্রাথমিকভাবে ৩টি স্থান নির্বাচন করা হয়েছে। মেলায় অর্ধশতাধিক স্টল করা যাবে। সাধারণ মেলাগুলোর মতোই স্টল করা যাবে। এছাড়া প্যাভিলিয়ন থাকবে। মেলায় পর্যটন ও ব্যাংক সেক্টরকে কিভাবে সম্পৃক্ত করা যায় সে বিষয়ে কাজ করা প্রয়োজন। আমরা ইতিমধ্যেই তাদের সাথে যোগাযোগ করছি। চট্রগ্রামের মেলাতে অংশগ্রহণে আগ্রহীদের অনেকেই লন্ডনে যাবার আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

বেসিসের ভাইস প্রেসিডেন্ট সৈয়দ আলমাস কবির বলেন, মেলায় পণ্য প্রদর্শনের বিষয়টা আগে থেকেই ভালভাবে জেনে নিতে হবে। অংশগ্রহনকারীরা পণ্য বিক্রি করতে পারবেন কিনা সেটি জানানো জরুরী।

এ বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রনালয়ের বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল প্রোগ্রামের ডেপুটি কো-অর্ডিনেটর হাফিজুর রহমান বলেন, পণ্য নিতে হলে অবশ্যই ইপিবিতে জানাতে হবে। আর বিক্রি করতে চাইলে অবশ্যই কাস্টমসকে জানাতে হবে।

যুক্তরাজ্যের ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের প্রতিনিধি মিসবাউর রহমান জানান, হাই-কমিশন থেকে জোর প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে সেখানকার উদ্ভাবন মন্ত্রী (ইনোভেশন মিনিস্টার) কে অনুষ্ঠানে উপস্থিত রাখার। এছাড়া বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত বৃটিশ এমপি রওশন আরাকে উপস্থিত রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে।

সভায় অংশগ্রহণকারী ব্যাংক প্রতিনিধিরা জানান, আমরা চেষ্টা করবো আমাদের সকল ই-সেবাকে প্রোমোট করার। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের সাথে কথা হবে। আশাকরি আমরা মেলাতে অংশগ্রহণ করবো।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন (জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে নয়)- তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের সহকারী সচিব মাহবুব হাসান শাহীন, জাতীয় মহিলা সংস্থার প্রকল্প পরিচালক (উপ-সচিব) মীনা পারভিন, সিটিও ফোরাশের সভাপতি তপন কান্তি সরকার, বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের পরিচালক অনন্ত কুমার চৌধুরী, আইমেশবিডির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মীর শাহেদ আলী, বাংলালিংকের অ্যাসোসিয়েট ম্যানেজার এ বি এম সাজ্জাদ আল-বারী, বাংলাদেশ ব্যাংকের সিনিয়র সিস্টেম অ্যানালিস্ট ওয়াহিদুল ইসলাম সরকার, ইসলামি ব্যাংকের অ্যাসিসট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ রাফিউল ইসলাম, এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট নুরুল ইসলাম খলিফা, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের অ্যাসিসট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট রবিউল আলম, বাক্য এর ফিন্যান্স সেক্রেটারি তৌহিদ হোসেন, এক্সিকিউটিভ কো-অর্ডিনেটর আবদুর রহমান শাওন, এফবিসিসিআই এর স্ট্যান্ডিং কমিটির পরিচালক শাফকাত হায়দার, জালালুদ্দিন আহমেদ ইয়ামিন, বিসিক এর ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার শামসুল হক, আইএসপিএবি এর যুগ্ম-সচিব সৈয়দ মোহাম্মদ তরিকুল ইসলাম, আইসিটি মন্ত্রনালয়ের পাবলিক রিলেশন অফিসার মাহবুবুর রহমান, কমজগৎ টেকনোলজিসের প্রজেক্ট ম্যানেজার তানভীর হাসান খান প্রমুখ।

About কমজগৎ ডেস্ক

একটি উত্তর দিন