রেস্টুরেন্টের তথ্য নিয়ে অ্যাপ ‘লেটস ঈট’

রেস্টুরেন্টের তথ্য নিয়ে অ্যাপ ‘লেটস ঈট’

eatভোজন রসিক বাঙালির জীবনে রসনা বিলাসের কথা কে না জানে! আর বাঙালি রেস্টুরেন্টের রয়েছে বিশ্বজোড়া নাম ডাক। দেশব্যাপী কয়েক লাখ রেস্টুরেন্টে বছর জুড়েই চলছে বৈচিত্রপূর্ণ খাবারের মহাযজ্ঞ। পরিবারের সবাইকে নিয়ে অনেকে ছুটির দিনে বেরিয়ে পড়েন পাশের কোন রেস্টুরেন্টে। আবার পছন্দের মানুষকে নিয়েও দৈনন্দিন জীবনের বাইরে কিছুটা বৈচিত্রময় সময় ও স্বাদের মধুর মুহূর্ত কাটাতে অনেকেই রেস্টুরেন্টে যান। কিন্তু রেস্টুরেন্টের তথ্য, দাম-দর সম্পর্কে আগে থেকে ধারণা না থাকায় অনেকে প্রিয় মানুষের সামনে বিব্রতও হন। আপনার স্বাদ ও সাধ্যের সমন্বয় ঘটানোর কাজটি এখন অনেক সহজ করে দেবে ‘লেটস ঈট’। দীর্ঘ তিন বছর গবেষণা ও তথ্য সংগ্রহ করে এই অ্যাপ্লিকেশনটি বানিয়েছে দেশের অন্যতম মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এমসিসি লিমিটেড।
‘লেটস ঈট’ রেস্টুরেন্ট গাইড হিসেবে বিস্তারিত জানার জন্য খুবই কার্যকরী একটি মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন। যা গুগল প্লে স্টোর থেকে এখনই ডাউনলোড করে নিতে পারেন। আপনার স্মার্টফোনে এই অ্যাপ্লিকেশনটি থাকা মানে শুধু ঢাকা শহরই নয়, তাবৎ দেশের সকল রেস্টুরেন্ট আপনার হাতের মুঠোয়। আপনি ছুটিতে কক্সবাজার যাবেন, লেটস ঈট আপনাকে জানিয়ে দেবে এই শহরের ভালো রেস্টুরেন্ট গুলোর বিস্তারিত তথ্য। এভাবে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জেলা ও বিভাগীয় শহরের রেস্টুরেন্টের তথ্য মিলবে নতুন এই মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনে।
‘লেটস ঈট’-এ পাওয়া যাবে বিস্তারিত খাবার মেন্যু। যাতে ঘরে বসে মোবাইল ফোনেই মেন্যু নির্বাচন করে ফেলতে পারেন। আরো তথ্য জানতে চাইলে ‘লেটস ঈট’ অ্যাপের মাধ্যমে সরাসরি ফোন করে কথা বলে নিতে পারেন রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষের সাথে। এছাড়া রন্ধন প্রণালী, বিশেষত্ব, রেস্টুরেন্টের ঠিকানা, খোলার সময়, খাবারের মূল্য তালিকা, মান সম্পর্কে ক্রেতাদের রিভিউসহ নানা তথ্য পাওয়া যাবে। এছাড়া মৌসুমে রেস্টুরেন্টে চলে নানা মূল্য ছাড়, অফার যা জানা যাবে লেটস ইট থেকে। পাশাপাশি যেসব রেস্টুরেন্ট হোম ডেলিভারি দেয় তাদের কাছ থেকে ঘরে বসে খাবার পাওয়া যাবে।
‘লেটস ঈট’ ভোজন রসিক মানুষের রেস্টুরেন্ট গাইড উল্লেখ করে এমসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আবির বলেন, এই অ্যাপ্লিকেশনের সুবিধাগুলোর মধ্যে রয়েছে, ডেলিভারি রিকোয়েস্ট, প্রি অর্ডার। তবে এটি ব্যবহার করতে হলে আগে কিছু তথ্য দিয়ে নিবন্ধন করতে হবে। এরপর আপনার একটি প্রোফাইল থাকবে যাতে আপনি ফলোয়ার, খাবারের ছবি, রিভিউ ইত্যাদি সংযুক্ত করতে পারবেন। অবস্থান খুঁজে পেতে সরাসরি গুগল ম্যাপে দেখা যাবে রেস্টুরেন্টের অবস্থান। এই অ্যাপ্লিকেশনে আছে সার্চ অপশন যা ব্যবহার করে দ্রুত রেস্টুরেন্ট ও বিশেষত্ব খুঁজে পাওয়া যাবে। যেমন- কেউ বাঙালি খাবার খেতে চান, তিনি অনুসন্ধান করে মুহূর্তেই পেয়ে যাবেন এসব রেস্টুরেন্টের তথ্য। এছাড়া রেটিং অপশন থেকে ক্রেতা তার অভিজ্ঞাতা জানিয়ে ভালো-মন্দ রেটিং দিতে পারবেন। ‘লেটস ঈট’-এ আছে সোশ্যাল শেয়ারিং অপশন যা ব্যবহার করে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতেও শেয়ার করা যাবে।
এছাড়া কোন রেস্টুরেন্ট কোন বিশেষ অফার দিলে স্মার্টফোনে চলে আসবে তার নোটিফিকেশন। এক কথায় রেস্টুরেন্টের তথ্য জানতে এখন আর কোথাও যেতে হবে না, শুধু ‘লেটস ঈট’ থাকলেই হলো।
অ্যাপ্লিকেশনটির ডাউনলোড লিংক: http://goo.gl/ZQwhGv

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন