রিভিউ: ওয়ালটন টি৭৩

বাংলাদেশের প্রযুক্তিপণ্যকে একধাপ এগিয়ে নিয়ে গেছে ওয়ালটন। অনেকটা গর্ব করার মতো জায়গাও করে নিয়েছে দেশিয় প্রযুক্তি নির্মাতা এ প্রতিষ্ঠানটি। ঘরে ঘরে মানুষ এখন ওয়ালটন পণ্যের দিকে ঝুকছে। দেশের অর্থ দেশেই রাখার পক্ষে মানুষ। সে লক্ষ্যকে সামনে নিয়েই ওয়ালটনের এগিয়ে যাওয়া।

প্রডাক্ট রিভিউ হিসেবে এ লেখার বিষয় ওয়ালটন মোবাইল ফোন। মডেলটি হলো টি৭৩। কম মূল্যে চমৎকার গ্রাফিক্সে ভরপুর এ সেটটি।

সাধারণ কথা:

ওয়ালটন টি৭৩ কালো রঙে মোড়ানো। এর গড়ন যেন কালোর জন্যই তৈরি। বর্তমান সময় থ্রিজি প্রযুক্তির সঙ্গে খাপ খাওয়া। সেখানে ওয়ালটন পিছিয়ে গেল। কারণ এ সেটটি শুধুমাত্র টুজি নেটওয়ার্কের উপর নির্ভর। এর ওজন মাত্র ৯৪.৫৪ গ্রাম।

নকিয়ার পুরানো আমলে এক সেটে টর্চ লাইট ছিল। সেজন্য গ্রামেগঞ্জে জনপ্রিয়তা পেয়েছিল সেই সেটটি। কিন্তু এরপর উৎপাদন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় নকিয়ার টর্চসহ সেটটি মানুষ এখনও মিস করে। মনে হয়, মানুষের সেই চাওয়াটা ধরতে পেরেছে। মানুষ এখন একটা সাধারণ মোবাইল সেটে অনেককিছু চায়। সে চাহিদা মেটাতেই ওয়ালটন টি৭৩ মডেলে রয়েছে টর্চ লাইট।

মেমোরি কার্ড রয়েছে ৫০০ এমবি জায়গা।

ডিসপ্লে এবং ক্যামেরা:

ডিসপ্লে দেখলে যে কেউ মুগ্ধ হয়ে যাবে। অসাধারণ ডিসপ্লে। স্ক্রিন একদম স্বচ্ছ ঝকঝকে। ভিডিও দেখা যাবে ৩২০*২৪০ পিক্সেলে। তবে ভিডিও ফরমেট হতে হবে এমপি৪ ফরমেটে। টু মেগাপিক্সেল ক্যামেরায় ছবি তুলে খুব একটা মন খারাপ হবে না।

ভাষা এবং ম্যাসেজ:

বাংলাদেশে তৈরি পণ্যে যদি বাংলা ভাষা না থাকে তবে সেটা দুঃখেরই ঘটনা হবে। সে দুঃখ না করলেও চলবে। কারণ টি৭৩ মডেল বাংলা ও ইংরেজি দু ভাষা সাপোর্ট করে। ম্যাসেজ এবং মাল্টিমিডিয়া ম্যাসেজ পাঠানোর কায়দা এ সেটে আছে।

সমস্যা হলো এ ফোনটির মাধ্যমে ইমেইল করা সম্ভব না। এজন্য মন খারাপ হতেই পারে। তবে জিমেইলের মাধ্যমে অপেরা ব্রাউজারে ফ্রি ইমেইল করতে পারার কথা। চেষ্টা করে দেখা যেতে পারে।

অ্যাপলিকেশন এবং গেইম:

মানুষ যা করে বেশি বেশি করে। সেই বেশির দিকেই নজর রেখেছে ওয়ালটন। তাই জনপ্রিয় গেইম অ্যাংরি বার্ড আছে এ মডেলে। বিশ্বব্যাপী ফেসবুক এবং অন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় এ গেইমটির জনপ্রিয়তার কথা সবাই জানে।

ব্যাটারি ও অন্যান্য:

দিনে যদি কেউ বেশি কথা বলে তবে তো ব্যাটারির কথা বাদ দিতে হবে। সঙ্গে করে ব্যাটারী চার্জার নিয়ে ঘুরা শ্রেয়।

এফএম রেডিও শোনার সুযোগ আছে। অবসর সময়টা এ মোবাইলের সঙ্গে খারাপ যাবে না। একইসঙ্গে ইউএসবি পোর্ট আছে। রেকর্ডারের কথাও ভুলেনি ওয়ালটন।

ভালো মন্দ:

ভালো হলো এর গ্রাফিক্স। চমৎকার গ্রাফিক্স। হাতে নিয়েই মুগ্ধ হতে হবে। কম দামে অনেককিছুই পাওয়া যাচ্ছে।

মন্দ দিক হলো ব্যাটারি চার্জ কম সময় থাকে। ফোনের ম্যামোরিও ব্যবহারকারীদের কতটা সন্তুষ্ট করতে পারে কে জানে।

৯৯% ওকে:

জনপ্রিয় একটি বিজ্ঞাপনের মতই বলতে হয়, সেটটি ৯৯% ভালো। খালি মাঝে মাঝে নেটওয়ার্ক হারিয়ে ফেলে। ব্যবহারকারীদের সবচেয়ে বেশি অভিযোগ এই পয়েন্টে। অনেকেই বলেছেন, বন্ধু ফোন দিয়ে বন্ধ পায়। গুরুত্বপূর্ণ কল সময়মত এ সেটে প্রবেশ করতে ব্যর্থ। যা নিয়ে বিরক্তির শেষ নেই।

এজন্য অবশ্যই ওয়ালটনকে ভাবতে হবে। সমস্যাটার কারণ ও সমাধানও বের করতে হবে। দেশীয় পণ্যের প্রতি মানুষের ভালোবাসা তবে আরও বেড়ে যাবে।

উপসংহার:

দাম দিয়েই উপসংহার টানি। মূল্য মাত্র ৪,৩২০ টাকা।

About sheriff.sire

একটি উত্তর দিন