মাইক্রোসফটের বুট ক্যাম্প অনুষ্ঠিত!

মাইক্রোসফটের বুট ক্যাম্প অনুষ্ঠিত!

নিরপত্তা ঝুঁকির কারণে আগামী ৮ এপ্রিল থেকে জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম এক্সপি ভার্সনের জন্য সেবা বন্ধ করে দিতে যাচ্ছে মাইক্রোসফট। অপরিদকে ব্যক্তিগত থেকে শুরু করে বাণিজ্যিক পর্যায়ে বাংলাদেশে পিসি ব্যবহারকারীদের অধিকাংশই এখনও মাইক্রোসফট এক্সপি ব্যবহার করে থাকেন। মেয়াদ উত্তীর্ণ অপারেটিং সিস্টেম এক্সপি ব্যবহার করে কেউ যেন ক্ষতির মুখোমুখি না হন সে জন্য সম্প্রতি (২৩ মার্চ ‘১৪) ঢাকার অদূরে সাভারে অনুষ্ঠিত হলো ‘মাইক্রোসফট বুট ক্যাম্প’।

ব্যবহারকারীদের আগাম সতর্ক করতে এবং তাদের জন্য অধিক নিরাপদ অপারেটিং সিস্টেম উইন্ডোজ-৮ ও ৮.১ এবং মাইক্রসফট অফিস এর নতুন সংস্করণ ‘অফিস ৩৬৫’ নিয়ে এই কর্মশালার আয়োজন করে মাইক্রসফট এর বাংলাদেশী পরিবেশক কম্পিউটার সোর্স।

Microsoft Boot Camp

 দুই পর্বের এ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন দেশব্যাপী মাইক্রসফট সফটওয়্যার বিক্রেতা এবং ইন্টারনেট সেবাদতা প্রতিষ্ঠানের অর্ধশত প্রতিনিধি। তাদের উদ্দ্যেশ্যে অনুষ্ঠানে মাইক্রসফট এক্সপি ভার্সনের নানা ঝুঁকি এবং তা থেকে উত্তরণের উপায় বিষয়ে আলোকপাত করেন কম্পিউটার সোর্স এর মাইক্রোসফট পণ্য ব্যবস্থাপক আবু তারেক আল কাইয়্যুম, রাজীব তানিম ও মনিরুজ্জামান। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন মাইক্রোসফট বাংলাদেশ এর পার্টনার সেলস এক্সিকিউটিভ রুমেসা হুসাইন, টেকনলজি অ্যাডভাইজার আবু সালেহ মুহাম্মদ রাশেদুজ্জামান ও পার্টনার অ্যাকাউন্ট ম্যানেজার আরিফ হোসাইন।

দিনব্যাপী এ কর্মশালায় জানানো হয়, মাইক্রসফট এক্সপি সেবা বন্ধ করে দেয়ায় প্রধান ঝুঁকির উৎস হবে এটিএম ও পিওএস মেশিনগুলো। এছাড়াও নতুন নতুন অনলাইন হুমকী মোকাবেলার ক্ষেত্রে সক্ষমতায় পিছিয়ে থাকায় অনাহূত বিড়ম্বনার শিকার হতে পারেন সাধারণ ব্যবহারকারীরা।

কর্মশালায় পিসি ব্যবহারকারীদের নিরাপদ থাকার জন্য মাইক্রসফট উইন্ডোজ-৮ এবং ৮.১, সিস্টেম বিল্ডারদেরকে মাইক্রসফট ওইএম এবং কর্পোরেট পর্যায়ে পেপার লাইসেন্স সফটওয়্যায় ব্যবহারের পরামর্শ দেয়া হয়। একইসাথে নকল অপারেটিং সিস্টেমের বদলে লাইসেন্সকৃত সফটওয়্যার ব্যবাহারের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়। পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে উপস্থাপন করা হয় লাইসেন্সকৃত সফটওয়্যারের বছর ব্যাপী সেবা এবং এর নিরাপত্তা ও বিশেষ সুবিধা।

About কমজগৎ ডেস্ক

একটি উত্তর দিন