ব্রিজ অ্যালায়েন্স এ যোগ দিল এয়ারটেল আফ্রিকা

ব্রিজ অ্যালায়েন্স এ যোগ দিল এয়ারটেল আফ্রিকা

বিশ্বব্যাপী ৫০০ মিলিয়ন গ্রাহকদের সেবাদানকারী ১৪টি মোবাইল অপারেটরের সমন্বয়ে গঠিত সংগঠন ব্রিজ অ্যালায়েন্স যোগ দিচ্ছে টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান ভারতী এয়ারটেল।

মঙ্গলবার এক বার্তায় এয়ারটেল বাংলাদেশ লি. এর গণমাধ্যম মুখপাত্র শমিত মাহবুব শাহাবুদ্দীন এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, এখন থেকে আফ্রিকায় এয়ারটেলের ১৭টি দেশের কার্যক্রম এই সংগঠনে যোগদান করবে এবং এর মাধ্যমে ব্রিজ অ্যালায়েন্সের এন্টারপ্রাইজ ও রোমিং সেবার সুবিধা গ্রহণ করতে পারবে।

9ea2fd39c455df0cf2159afcc971c01a_L

এ বিষয়ে এয়ারটেল আফ্রিকা এর চিফ মার্কেটিং অফিসার আন্দ্রে বেয়রস বলেন, “আমাদের এন্টারপ্রাইজ গ্রাহকরা যেন সর্বোত্তম সেবা গ্রহণ করতে পারে এজন্য এরকম একটি সংগঠনে যোগদান করা আমাদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। এছাড়াও এয়ারটেল আফ্রিকার গ্রাহকরা এশিয়ার দেশগুলোসহ এবং অন্যান্য বহু দেশে অত্যাধুনিক রোমিং সেবা উপভোগ করতে পারবে।”

ব্রিজ অ্যালায়েন্সের চিফ এক্সেকিউটিভ অফিসার আলেসান্দ্রো আদ্রিয়ানি বলেন, “এয়ারটেল আফ্রিকাকে আমরা ব্রিজ অ্যালায়েন্স এ স্বাগত জানাই। শুধুমাত্র এয়ারটেল আফ্রিকাই নয়, ব্রিজ অ্যালায়েন্সের সব অপারেটরের গ্রাহকরা ভৌগলিকভাবে বর্ধিত ও সর্বোন্নত ভয়েস ও ডাটা রোমিং সেবা উপভোগ করতে পারবে।”

গত ৩০ সেম্টেম্বর ভৌগলিক আওতা অনুযায়ী এয়ারটের আফ্রিকার সবচেয় বড় টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান হিসেবে আবির্ভূত হয়। প্রতিষ্ঠানটির সেবা পরিচালিত হয় আফ্রিকার বুর্কিনা ফাসো, চাদ, ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অফ কঙ্গো, গ্যাবন, ঘানা, কেনিয়া, মালাওয়ি, মাদাগাস্কার, নাইজার, নাইজেরিয়া, রুয়ান্ডা, সিচেলিস, সিয়েরা লিওন, তানজানিয়া, উগান্ডা এবং জাম্বিয়া। পরিসংখ্যান অনুযায়ী এখানে এয়ারটেল এর  ৬৬ মিলিয়ন গ্রাহক রেয়ছে।  গ্রাহক সংখ্যা অনুযায় বিশ্বব্যাপী এয়ারটেল চতুর্থ সর্ববৃহৎ মোবাইল অপারেটর।

প্রসঙ্গত, ব্রিজ অ্যালায়েন্স ১৪টি অগ্রণী টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠানের একটি সংগঠন। এর সদস্যরা হচ্ছে এয়ারটেল (ভারত ও বাংলাদেশ), এআইএস (থাইল্যান্ড), সিএসএল (হংকং), সিটিএম (ম্যাকাও), গ্লোব টেলিকম (ফিলিপাইন), ম্যাক্সিস (মালয়শিয়া), মোবিফোন (ভিয়েতনাম), সিংটেল মোবাইল (সিঙ্গাপুর), অপটাস মোবাইল (অস্ট্রেলিয়া), এসকে টেলিকম (দক্ষিণ কোরিয়া), তাইওয়ান মোবাইল (তাইওয়ান), টেলকমসেল (তিমুর) এবং টেলকমসেল (ইন্দোনেশিয়া)।

About বদরুদ্দোজা মাহমুদ তুহিন

একটি উত্তর দিন