বেসিস সফটএক্সপো ২০১২ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত

বেসিস সফটএক্সপো ২০১২ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত


“Empowering Next Generation” এই মূলমন্ত্রকে সামনে রেখে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার এন্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) আয়োজন করতে যাচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় সফটওয়্যার এবং আইসিটি ইভেন্ট “বেসিস সফটএক্সপো ২০১২”। ২০০৩ সাল থেকে শুরু হওয়া এই ইভেন্ট আয়োজন করে আসছে বেসিস। সফটএক্সপো ২০১২ কে সামনে রেখে গত শনিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১২, সকালে বেসিস আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বেসিস সফটএক্সপো ২০১২ এর আহ্বায়ক তামজিদ সিদ্দিক স্পন্দন তার বক্তৃতায় বলেন- এবারের সফটএক্সপোতে দেশী বিদেশি প্রায় ১৪০টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিবে, থাকবে ৮০টির বেশি সেমিনার, টেকনিক্যাল সেশন, ওপেন সেশন, বিজনেস ম্যাচমেকিং প্রেজেন্টেশন। মাননীয় অর্থমন্ত্রী জনাব আবুল মাল আবদুল মুহিত প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সফটএক্সপোর উদ্বোধন করতে সদয় সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।

এছাড়াও বেসিস কনফারেন্স রুমে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন বেসিস সভাপতি মাহবুব জামান, মহাসচিব ফোরকান বিন কাশেম, স্পন্সরদের পক্ষ থেকে প্লাটিনাম স্পন্সর জিপি আইটির সিএফও ক্রিস্টি থেরন, গোলড স্পন্সর ডেল বাংলাদেশ এর কান্ট্রি ডিরেক্টর সোনিয়া বশির কবির, ব্র্যাক ব্যাংক এর সিটিও নাভেদ ইকবাল এবং হুয়াওয়ে -এর মার্কেটিং ডিরেক্টর জেরি।

বেসিসের বিগত যে কোনো সময়ের চেয়ে এবারে সফটএক্সপোর ব্যাপ্তি অনেক বড়। প্রদর্শনী ৭টি ভিন্ন ভিন্ন জোনে বিভক্ত করা হয়েছে, বিজনেস সফটওয়্যার, আউটসোর্সিং, মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন, ক্লাউড এন্ড কমিউনিকেশন, আইটি এনাবেল্ড সার্ভিস, আইটি এডুকেশন ও ই-কমার্স জোন। এছাড়াও ওয়ান-টু-ওয়ান বিজনেস মিটিংয়ের জন্য থাকছে বিজনেস লাউঞ্জ। প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধি ও সংবাদ কর্মীদের জন্য রয়েছে মিডিয়া লাউঞ্জ, যেখানে থাকবে ইন্টারনেট সংযোগ, কম্পিউটার ও প্রয়োজনীয় সুবিধাদি। প্রদর্শনীতে প্রবেশের ক্ষেত্রে এবারেও অনুসরণ করা হবে ভিজিটর রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম।

এবারের সফটএক্সপোরতে ‘ভাষার মাসে বাংলা ব্লগের একটি মিলন মেলা’ শিরোনামে ব্লগারদের জন্য এবং ফ্রিল্যান্সারদের জন্য থাকছে দুটি পৃথক সম্মেলন।

তরুণ প্রজন্মের জন্য সফটএক্সপো ২০১২

তরুণ প্রজন্মের সফটএক্সপো ২০১২ তে প্রদর্শনীর পাশাপাশি এবার থাকছে বিশেষ আয়োজন। তরুণ প্রজন্মের উদ্ভাবনী শক্তির উন্মেষ ঘটাতে তাদের আরো উৎসাহিত করতে রয়েছে ”আবিস্কারের খোঁজে”। প্রায় ২০০ নতুন উদ্ভাবক নিয়ে শুরু হওয়া এই প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বটি হবে সফটএক্সপোতে। বিজয়ীদের জন্য রয়েছে আকর্ষনীয় পুরস্কার। এর মধ্যে প্রথম পুরস্কার ১ (এক) লক্ষ টাকা।

প্রোগামারদের জন্য রয়েছে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ‘কোড ওয়ারিয়রস চ্যালেঞ্জ’। পিএইচপি, ডট নেট, জাভা এবং এন্ড্রয়েড। এই ৪টি ট্র্যাকে প্রোগ্রামিং এর যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছে দেশ সেরা সহস্রাধিক প্রোগ্রামার।

তরুণ প্রজন্মকে দেশের আইসিটি ইন্ডাষ্ট্রিতে চাকরির সুযোগ করে দেয়ার লক্ষ্যে রয়েছে আইটি জব ফেয়ার। বিভিন্ন আইসিটি কোম্পানিগুলো সফটএক্সপো চলাকালীন সময়ে খুঁজে নেবে তাদের পছন্দসই প্রার্থী। মেলার প্রথম ২ দিন মেলা প্রাঙ্গণে আগ্রহীদের কাছে থেকে সিভি সংগ্রহ করা হবে। ইন্টারভিউ নেয়া হবে মেলার ৪র্থ দিন।

ফ্রিল্যান্সিং-এর প্রতি তরুণ প্রজন্মকে আরো উৎসাহিত করতে বিগত বছর থেকে বেসিস প্রচলন করেছে ‘বেসিস ফ্রিল্যান্সার অব দ্যা ইয়ার’ শীর্ষক অ্যাওয়ার্ড প্রদান কার্যক্রম। সহস্রাধিক প্রতিযোগীর মধ্য থেকে ব্যক্তিগত, দলীয় এবং প্রতিষ্ঠান ভিত্তিক ক্যাটাগরিতে বিজয়ীদের মধ্যে প্রদান করা হবে এ পুরস্কার।

যা থাকছে এবারের মেলায়:

স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নের জন্য রয়েছে আন্তর্জাতিক ম্যাচমেকিং। দেশীয় প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি এ ম্যাচমেকিং-এ আইটিসি ও সিবিআই নেদারল্যান্ডসের মাধ্যমে অংশ নেবে ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ডস ও যুক্তরাজ্যের ১০টির ও বেশি আইটি কোম্পানির ২২ জনের মত প্রতিনিধি।

সেমিনার:

সফটএক্সপোতে চলাকালীন আয়োজন করা হবে ১২টিরও বেশি সেমিনার ও রাউন্ডটেবিল আলোচনার মধ্যে রয়েছে ই-পেমেন্ট, বিল্ডিং ইফেক্টিভ ইন্ডাস্ট্রি লিংকেজ, রোল অব স্যাটেলাইট ইমেজ, আউটসোর্সিং ইন দ্যা ক্লাউড এন্ড ইকো সিস্টেম, নারীর ক্ষমতায়ন ও তথ্য প্রযুক্তিতে নারী, প্রাইভেট ইক্যুয়িটি ফান্ডিং ইত্যাদি বিষয়ে মিডিয়া বাজার ও উইন্ডি টাউনে আয়োজন করা হয়েছে সেমিনার।

টেকনিক্যাল সেশন:

এবারের সফটএক্সপোর অন্যতম আকর্ষণ টেকনিক্যাল সেশন। ভিন্ন ভিন্ন বিষয়ের ওপর থাকছে ১২টি টেকনিক্যাল সেশন। সেশনগুলো পরিচালনা করবেন খ্যাতিমান দেশি বিদেশি তথ্য প্রযুক্তিবিদরা। রয়েছে বায়ো-ইনফরমেটিক্স, ক্লাউড ও ফেসবুকের অ্যাপ্লিকেশন, ইন্টারনেট মার্কেটিং, ওয়েব ডেভলপমেন্ট সহ প্রয়োজনীয় বিষয়ের উপর টেকনিক্যাল সেশন।

ওপেন সেশন:

মেলায় আইডিয়া এবং ইনোভেশন প্ল্যাটফর্মে রয়েছে ওপেন সেশন। যেখানে ৪০টির মতো পণ্য উদ্ভাবনীমূলক ধারণা উপস্থাপনা করা হবে। এছাড়াও মেলা প্রাঙ্গণে থাকবে বিজনেস মিট এন্ড ম্যাচ বুথ।

অ্যাওয়ার্ড নাইট:

দেশের আইসিটি খাতে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের অবদানকে স্বীকৃতি দেবার জন্য সফটএক্সপোতে আয়োজন করা হবে অ্যাওয়ার্ড নাইট। দেয়া হবে ডিজিটাল চ্যাম্পিয়ান ও আজীবন সম্মাননা পুরস্কার। পুরস্কৃত করা হবে কোড ওয়ারিয়রস চ্যালেঞ্জ এবং আবিস্কারের খোঁজে এর বিজয়ীদের এবং দেশ সেরা ১০ জন ফ্রিল্যান্সারদের।

মেলায় এবারের স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য এবং কর্পোরেট ভিজিটরদের জন্য থাকছে বিনামূল্যে মেলায় প্রবেশের সুবিধা।

এবারের সফটএক্সপোর প্ল্যাটিনাম স্পন্সর জিপি আইটি, গোল্ড স্পন্সর ডেল, কো-স্পন্সর হিসেবে রয়েছে ব্রাক ব্যাংক ও আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল, ইন্টারনেট পার্টনার কিউবি, ক্লাউড ও কমিউনিকেশন জোন স্পন্সর হুয়াওয়ে এবং আউটসোর্সিং জোন স্পন্সর সিমসলিউশন, ম্যাচমেকিং এর সহায়তায় রয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড সেন্টার এবং সিবিআই নেদারল্যান্ডস।

এক কথায় তরুণ প্রজন্ম থেকে শুরু করে আন্তর্জাতিক প্রযুক্তিবিদ, আগামী দিনের উদ্ভাবক, চাকরিপ্রার্থী চাকরিদাতা কিংবা উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা সকলের এক মিলন মেলায় পরিণত হতে যাচ্ছে বেসিস সফটএঙ্পো ২০১২। আরও জানতে এবং অনলাইন রেজিষ্ট্রেশনের জন্য ভিজিট করুন www.softexpo.com.bd

 

এক নজরে বেসিস সফটএক্সপো ২০১২

থিম      :           Empowering Next Generation

স্থান      :           বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র, ঢাকা।

তারিখ ও সময়            :   ২২ ফেব্রুয়ারী – ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১১

প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত

আয়োজক: বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস

সহ-আয়োজক : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এবং অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন প্রোগ্রাম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়

প্ল্যাটিনাম স্পন্সর: গ্রামীণফোন আইটি

গোল্ড স্পন্সর:  ডেল বাংলাদেশ

ইন্টারনেট পার্টনার: কিউবি

ক্লাউড ও কমিউনিকেশন জোন স্পন্সর: হুয়াওয়ে

আউটসোর্সিং জোন স্পন্সর: সিমসলিউশন

সেমিনার/ রাউন্ডটেবিল: ১২ টি

টেকনিক্যাল সেশন: ২০ টি

বিজনেস মিট এন্ড ম্যাচ: ৩ টি

প্রবেশ মূল্য:  সাধারণ টিকেট ৫০ টাকা। স্কুল/ কলেজ/ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পরিচয়পত্র প্রদর্শন সাপেক্ষে বিনামূল্যে প্রবেশের ব্যবস্থা। ভিজিটিং কার্ড প্রদর্শন সাপেক্ষে অন্যান্য পেশাজীবিদের বিনামূল্যে প্রবেশের ব্যবস্থা।

(সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)

About mehdi

একটি উত্তর দিন