বিনা মূল্যে ছবি ও ভিডিও রাখার সুবিধা

বিনা মূল্যে ছবি ও ভিডিও রাখার সুবিধা

বিনা মূল্যে আপনার সব ছবি ও ভিডিও ক্লাউডে সংরক্ষণ করে রাখার সুবিধা দেবে গুগল। ক্লাউডকে খুব সাধারণভাবে কম্পিউটারের পরিবর্তে ইন্টারনেটে চালিত সফটওয়্যার ও সার্ভিস বলা যেতে পারে। বৃহস্পতিবার গুগলের বার্ষিক ডেভেলপার সম্মেলনে গুগল নতুন একক একটি সেবা চালু করেছে যা ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের বিনা মূল্যে ছবি ও ভিডিও ক্লাউডে সংরক্ষণ করার সুবিধা দেবে। বর্তমানে গুগল ফটোজ নামের সেবাটি অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস ও ওয়েবের জন্য চালু রয়েছে যেখানে ছবি সংরক্ষণ করে রাখা যায়।
যখন অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস চালিত যন্ত্রে গুগল ফটোজ ইনস্টল করা থাকবে তখন ছবি ও ভিডিও স্বয়ংক্রিয়ভাবে তাতে আপলোড হয়ে ক্লাউডে সংরক্ষিত হতে শুরু করবে। ক্লাউডে ছবি ও ভিডিও ফুল রেজুলেশনে সংরক্ষিত হবে। ছবির ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন কোয়ালিটি হবে ১৬ মেগাপিক্সেল আর ভিডিওর ক্ষেত্রে ১০৮০ পিক্সেল। এর চেয়ে বেশি রেজুলেশনের ছবি বা ভিডিও সংরক্ষণ করতে চাইলে গুগল অ্যাকাউন্টের জন্য সংরক্ষিত স্টোরেজ ব্যবহার করতে হবে। গুগল অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে মোট ১৫ গিগাবাইট জায়গা দেয় গুগল যা গুগল ড্রাইভ, জিমেইল, গুগল প্লাসের ছবির ক্ষেত্রে ভাগাভাগি করে ব্যবহৃত হয়। এ ছাড়া ব্যবহারকারী চাইলে এক টেরাবাইট স্টোরেজ কিনে ব্যবহার করতে পারে।
গুগলের আই/ও নামের সম্মেলনে গুগলের বিনা মূল্যে ফটো ও ভিডিও সংরক্ষণের সেবাটির বিশেষ ডেমো দেখানো হয়। এখানে ক্লাউডে সংরক্ষিত ছবি ব্রাউজ করা বা কলিং করা খুব সহজ বলে বর্ণনা করা হয়। গুগল ফটোজ সেবাটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্যক্তি ও স্থান চিনতে পারে বলে আলাদা করে ট্যাগ করার দরকার পড়ে না। এ ছাড়াও বিশেষভাবে ছবি ও ভিডিও সার্চও করা যায়।
বেল্ট জন ফটো এডিটর ও কোলাজ মেকার এই দুটি ফিচার যুক্ত রয়েছে গুগল ফটোজে। গুগল ফটোজ ব্যবহার করে না এমন বন্ধুদের সঙ্গেও ছবি শেয়ার করার সুবিধা রয়েছে এতে।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন