বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্ণর ই-কমার্স সপ্তাহের উদ্বোধন করলেন

ই-কমার্স সপ্তাহের উদ্বোধন করলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্ণরবাংলাদেশ ব্যাংক ও বেসিস এর যৌথ উদ্যোগে এবং আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিলের সহযোগিতায় আয়োজিত ই-কমার্স সপ্তাহ’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকার একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সপ্তাহব্যাপী এ আয়োজনের উদ্বোধন ঘোষণা করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্ণর ড. আতিউর রহমান।

জনসাধারণকে অনলাইনে কেনাকাটা করতে এবং ব্যবসায়ীদের ই-কমার্সের ব্যাপারে উৎসাহিত করতে সপ্তাহব্যাপী এ আয়োজন। ই-কমার্স সপ্তাহের স্লোগান হচ্ছে Shop Online : Anything. Anytime (অনলাইনে কেনাকাটা করুন, যেকোনো কিছু, যেকোনো সময়)।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মি: দাসগুপ্ত অসীম কুমার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বেসিস সভাপতি একেএম ফাহিম মাশরুর।

পার্টনার প্রতিষ্ঠানসমূহের পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ব্রাক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী  কর্মকর্তা সৈয়দ মাহবুবুর রহমান, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কাশেম মোঃ শিরিন এবং এসএসএল কমার্সের প্রধান নির্বাহী সাইফুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ই-কমার্স সপ্তাহের আহ্বায়ক বেসিস-এর সিনিয়র সহ-সভাপতি শামীম আহসান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্ণর বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ চালু করেছে। শুরুতে মাত্র কয়েকটি ব্যাংক দিয়ে পেমেন্ট সুইচের যাত্রা শুরু হলেও জানুয়ারি ২০১৩ মাসের মধ্যেই সবগুলো ব্যাংক এ পেমেন্ট সুইচের আওতায় চলে আসবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন দেশে বর্তমানে ৪৬ লাখ কার্ড ব্যবহারকারী আছে। তারা যাতে এ কার্ড ব্যবহার করে যেকোনো পণ্য ও সেবা ক্রয় করতে পারে সে ব্যাপারে ব্যাংকগুলোর সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি বলেন, এই ই-কমার্স সপ্তাহকে উপলক্ষ করে ই-কমার্স বিষয়ক সচেতনতা আমাদেরকে বছরব্যাপী করতে হবে। ই-কমার্স কার্যক্রম জনপ্রিয় করার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে সম্ভব সব রকম প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে।

তিনি বাংলাদেশ ব্যাংক কে ই-কমার্স কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করার বেসিসকে সাধুবাদ জানান। সেই সাথে প্রত্যন্ত অঞ্চলের এসএমই উদ্যোক্তাদের নানারকম পণ্য বিশ্বব্যাপী বিপননে সহযোগিতাদানের জন্য বেসিসকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। বক্তারা আরো বলেন দেশে এখন প্রতিমাসে প্রায় ১০ কোটি টাকার মত অনলাইন লেনদেন হচ্ছে এবং প্রতিমাসেই লেনদেন বাড়ছে।

উল্লেখ্য, ৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া  ই-কমার্স সপ্তাহ চলবে আগামী ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত। সপ্তাহব্যাপী এ আয়োজনের মধ্যে থাকছে ৪টি গোলটেবিল বৈঠক, একটি সেমিনার, দু’টি টেকনিক্যাল সেশন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ই-কমার্স প্রচারমূলক বিশেষ কার্যক্রম ও প্রদর্শনী। এছাড়াও বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে ১১ ও ১২ জানুয়ারি থাকছে বিশেষ প্রচারণা ও ক্রেতাদের সাথে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানসমূহের সরাসরি মতবিনিময়ের সুযোগ এবং ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবরে কনসার্ট।

সপ্তাহব্যাপী আয়োজিত ই-কমার্স উইকে সেমিনার এবং গোলটেবিলের মধ্যে আজ শনিবার সকাল ১১টায় বেসিস মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে ই-কমার্স বিষয়ক টেকনিক্যাল কনফারেন্স (রুবি অন রেইলস) শীর্ষক সেমিনার।

একই দিনে ৬টায় বেসিস মিলনায়তনে থাকছে ‘সেশন বাই গুগল বিজনেস গ্রুপ অন ই-কমার্স’ শীর্ষক আয়োজন। ৭ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় রূপসী বাংলা হোটেলে অনুষ্ঠিত হবে ‘ই-কমার্স অ্যাজ দি বিজনেস ড্রাইভার : পটেনশিয়ালস অ্যান্ড চ্যালেঞ্জেস’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক।

এছাড়া একই দিনে সকাল ১০.৩০ মিনিটে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে ‘ই-কমার্স প্রদর্শনী’ এবং দুপুরে হবে বিশেষ কনসার্ট। ৮ জানুয়ারি সকাল ১০.৩০ মিনিটে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকছে ‘এক্সিবিশন অন ই-কমার্স’ এবং বিজনেস ফ্যাকাল্টি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে ‘ই-কমার্স: নিউ ক্যারিয়ার অ্যান্ড এন্টারপ্রেনিয়রশিপ অপর্চুনিটি’ শীর্ষক সেমিনার। ৯ জানুয়ারি সিটিও ফোরামের সাথে যৌথ উদ্যোগে বিকেল ৪টায় বেসিস মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে ‘ন্যাশনাল পেমেন্ট সিস্টেম সুইচ অ্যান্ড নিউ অর্পচুনিটি ফর ই-কমার্স’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক। ১০ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় বেসিস মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে ‘অনলাইন বিজনেস: অপর্চুনিটি ফর এসএমই এন্টারপ্রেনিয়র’ শীর্ষক সেমিনার এবং আইইউবি ক্যাম্পাসে থাকছে ‘স্টার্টআপ উইকেন্ড’।

আগামী ১২ জানুয়ারি, শনিবার ডেইলি স্টার মিলনায়তনে সকাল ১১টায় ডেইলি স্টারের সাথে যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হবে ‘ই-কমার্স ইন বাংলাদেশ: হাউ রেডি আর উই?’ শীর্ষক সেমিনার। ১১ ও ১২ জানুয়ারি বসুন্ধরা সিটি মলে অনুষ্ঠিত হবে ‘এক্সিবিশন অন ই-কমার্স’ শীর্ষক আয়োজন এবং ১২ জানুয়ারি বিকেলে ধানমন্ডীর রবীন্দ্র সরোবরে অনুষ্ঠিত হবে ‘ই-কমার্স কনসার্ট’। ই-কমার্স সপ্তাহের সহযোগী হিসেবে রয়েছে সূর্যমুখী, আমার দেশ আমার গ্রাম, পেজা, রকমারি ডট কম, আজকের ডিল ডট কম, এখনই ডট কম, বিকাশ ও অসকম।

সহযোগী প্রতিষ্ঠান ছাড়াও অংশগ্রহণকারী ৪টি প্রতিষ্ঠান হচ্ছে অ্যাড টু ক্লিকস, ষোলআনা, বিপনী ডট কম ও ওময়বশহর। বিস্তারিত জানা যাবে www.basis.org.bd ঠিকানায়।

উল্লেখ্য, ই-কমার্স সপ্তাহের সহযোগী পার্টনার হিসেবে রয়েছে ৮টি প্রতিষ্ঠান। সূর্যমুখী, আমার দেশ আমার গ্রাম, পেজা, রকমারি ডট কম, আজকের ডিল, এখনি ডট কম, বিকাশ ও অসকম। সহযোগী প্রতিষ্ঠান ছাড়াও অংশগ্রহণকারী ৪টি প্রতিষ্ঠান হচ্ছে অ্যাড টু ক্লিক্স, ষোলআনা, বিপনী ডট কম এবং ওয়েবশহর।


About বিদ্যুৎ বিশ্বাস

একটি উত্তর দিন