প্রস্তাবিত বাজেট পুনর্বিবেচনা চায় কম্পিউটার সমিতি

প্রস্তাবিত বাজেট পুনর্বিবেচনা চায় কম্পিউটার সমিতি

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি খাতের ২০১৪-১৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে অর্থমন্ত্রীকে ছয়টি বিষয়ে ধন্যবাদ জানিয়ে আটটি প্রস্তাব পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছে আইটি ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি। বিসিএস কার্যনির্বাহী কমিটির পক্ষ থেকে দেয়া প্রস্তাবিত বাজেট মূল্যায়ন বিষয়ে এই দাবি জানানো হয়।

বাজেট মূল্যায়নে প্রস্তাবিত বাজেটে তথ্য-প্রযুক্তি খাতের ৬৬ শতাংশ বরাদ্দ বাড়ানো, ইন্টারনেট ও নেটওয়ার্কিং যন্ত্রাংশে শুল্ক কমানো, কর অবকাশ সুবিধা ২০১৯ সাল পর্যন্ত করা, কোম্পানির কর হার কমানো এবং ব্যক্তি পর্যায়ে কর হার পুনর্বিন্যাসের জন্য বিসিএস কার্যনির্বাহী কমিটির পক্ষ থেকে সরকারকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে বিসিএস সভাপতি এএইচএম মাহফুজুল আরিফ জানিয়েছেন, বাজেট বক্তব্যে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার প্রত্যয়ে ‘জ্ঞানভিত্তিক ও প্রযুক্তি নির্ভর মাধ্যম’ হিসেবে ‘আইসিটি খাত’কে ঘোষণা করার মধ্য দিয়ে এর গুরুত্ব প্রকাশ করাটা ইতিবাচক। তাই প্রস্তাবিত বাজেট পর্যালোচনায় আটটি বিষয়ে অর্থমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে তা সরকারের রূপকল্প ২০২১ বাস্তবায়নে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

বিসিএস এর প্রস্তাবিত বাজেটের পুনর্মূল্যায়নে ১৯ ইঞ্চির চেয়ে বড় ২৭ ইঞ্চি পর্যন্ত মনিটরকে শুল্ক সুবিধা প্রদান; ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর গ্রাহক পর্যায়ে ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার; এইচএস কোড পুনর্বিন্যাস; আইসিটি প্রতিষ্ঠানের বাড়ি ভাড়া মূসকমুক্ত রাখা; সিসি ক্যামেরায় শুল্ক হরাস; ওয়েবক্যামকে শুল্কমুক্ত রাখা; ভোক্তা পর্যায়ে আইসিটি পণ্যের ওপর এটিভি ৩%-এ নামিয়ে আনা; হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার ও নেটওয়ার্কিংয়ে সম্পূরক শুল্ক অবকাশ সুবিধা সম্প্রসারণে সরকারের সুদৃষ্টি চাওয়া হয়েছে।

About ওয়ািসম

একটি উত্তর দিন