নীলফামারীতে মোবাইল অ্যাপস উন্নয়ন কর্মশালা

নীলফামারীতে মোবাইল অ্যাপস উন্নয়ন কর্মশালা

শেষ হলোনীলফামারী সার্কিট হাউসে অনুষ্ঠিত পাঁচ দিন ব্যাপি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল অ্যাপস উন্নয়ন কর্মশালা। গণপ্রজাতন্ত্রীবাংলাদেশসরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ওতথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রণালয়ের অধীনে“জাতীয়পর্যায়েমোবাইলঅ্যাপ্লিকেশনউন্নয়নেসচেতনতাওদক্ষতাবৃদ্ধিকর্মসূচির”আওতায় ৬৪জেলায়মোবাইলঅ্যাপ্লিকেশন উন্নয়নপ্রশিক্ষণের অংশহিসেবেএকার্যক্রম গত৬ মে শুরু হয় এবং ১০ মে ২০১৪ সমাপনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শেষ হয়।সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ(আইসিটি) ওনীলফামারী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিতএকর্মশালায়কারিগরিসহযোগিতাদেয় এথিক্স অ্যাডভান্সড টেকনোলজি লিমিটেড(ইএটিএল)।

পাঁচ দিন ব্যাপি কর্মশালার প্রথম দিনেপ্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাবমোঃ জাকির হোসেন,জেলা প্রশাসকনীলফামারী। এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন এস এ এম রফিকুন্নবী,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(জেনারেল),জনাব মোঃ এনামুলহক,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক( রাজস্ব), জেতী প্রু, সহকারী কমিশনার(আইসিটি), জনাব মোঃ যোবায়ের হোসেন, সহকারী কমিশনারসহ আরো অনেকে।

Untitled

নীলফামারী সার্কিট হাউসে অনুষ্ঠিত পাঁচ দিন ব্যাপি এইপ্রশিক্ষণে প্রতিযোগিতামূলকপরীক্ষারমাধ্যমেজেলার বিভিন্নশিক্ষা প্রতিষ্ঠানথেকে৩০ জনপ্রশিক্ষনার্থীকে নির্বাচিতকরা হয় এবং প্রশিক্ষণ শেষে ২৯ জনকেডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তিমন্ত্রণালয় কর্তৃক সনদপত্র তুলে দেওয়া হয়।এই কর্মসূচির মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা ৫ দিন ব্যাপি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কিভাবে জাভা প্রোগ্রামিং ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরণের মোবাইল অ্যাপস তৈরির করা যায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা লাভ করে যা আমাদের দৈনন্দিন জীবন যাত্রার মান পরিবর্তন ও আর্থ–সামাজিক উন্নয়ন ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে। কর্মশালারশেষদিকে ব্যবহারিকক্লাসেরমাধ্যমেপ্রশিক্ষণার্থীরাবিভিন্নধরনেরমোবাইলঅ্যাপ্লিকেশনওতৈরীকরেন।শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়েরমেধাবী শিক্ষার্থী “মোঃ খাইরুল্লাহ গৌরবের”তৈরি করা“Ask@You”অ্যাপটি সেরা অ্যাপ হিসেবে নির্বাচিত হয় এবং সিম্ফনীর পক্ষ থেকে পুরস্কার হিসেবে একটি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোন তুলে দেওয়াহয়।

পাঁচ দিন ব্যাপি কর্মশালার সমাপনিদিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিতছিলেন জনাবমোঃ জাকির হোসেন,জেলা প্রশাসকনীলফামারী। এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন এস এ এম রফিকুন্নবী,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(জেনারেল), জেতী প্রু,সহকারী কমিশনার(আইসিটি) সহ আরো অনেকে।

পুরো প্রকল্পে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে ইএটিএল ও এমসিসির সাথে আরও কাজ করছে বেসিস,মাইক্রোসফট,গ্রামীণফোন, রবি,নোকিয়া,সিম্ফনি,এসওএল কোয়েস্ট ও গুগল ডেভেলপার গ্রুপ ঢাকা।

 

About অঞ্জন দেব

একটি উত্তর দিন