নকিয়ার ‘ক্রিয়েট ফর মিলিয়নস’ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশী অ্যাপ্লিকেশন্স শীর্ষস্থানে

নকিয়ার ‘ক্রিয়েট ফর মিলিয়নস’ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশী অ্যাপ্লিকেশন্স শীর্ষস্থানে


আরও একশ কোটি মানুষকে মোবাইল ফোন ও সেবার সাথে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে নকিয়া ইতিমধ্যে একটি কৌশল গ্রহণ করেছে। সেটি কার্যকর করতে মোবাইল ডিভাইসে ব্যবহারের জন্য যে অসাধারণ কিছু অ্যাপ্লিকেশন্সও দরকার তা নকিয়া ভালোভাবেই অনুধাবন করে। সে অনুযায়ী স্পেনের বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত ‘মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০১২’ উপলক্ষে নকিয়া ‘ক্রিয়েট ফর মিলিয়নস’ শীর্ষক একটি প্রতিযোগিতা আয়োজনের উদ্যোগ নেয়। এতে অংশ নেওয়ার জন্য সারাবিশ্বের মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপারদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। এতে ব্যাপকভাবে সাড়া দিয়ে ডেভেলপাররা নকিয়ার সিরিজ ৪০ হ্যান্ডসেটের জন্য মোট এক হাজার তিনশরও বেশি অ্যাপ্লিকেশন দাখিল করা হয়। এরমধ্যে বাংলাদেশের ডেভেলপারদের জমা দেওয়া দুটি অ্যাপ্লিকেশন্স ‘ইন দ্য নো’ (“In the know”) ক্যাটেগরিতে পুরস্কার লাভ করে। এই প্রতিযোগিতায় আরো তিনটি ক্যাটাগরি ছিলো: ‘অ্যাকসেস টু নোলেজ’ (Access to Knowledge), ‘ইমোশনাল ক্লোজনেস’ (Emotional Closness), ও ‘ফান অ্যান্ড গেমস’ (Fun and Games)। প্রতিটি ক্যাটাগরি থেকে শীর্ষ ১০টি অ্যাপ্লিকেশনকে বিজয়ী বলে ঘোষণা করা হয়।

এই প্রতিযোগিতায় বৈশ্বিক অনলাইন কমিউনিটির জন্য ‘রাইট থ্রি’ (Write 3) শীর্ষক অ্যাপ্লিকেশন উপস্থাপন করা হয়। যেটি ব্যবহার করে বিশ্বের যেকোনো জায়গা থেকে সিটিজেন জার্নালিজম বা নাগরিক সাংবাদিকতার গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেদন তৈরি করা যাবে। এই অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারকারী সংবাদের উৎস হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারবেন। এই অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করলে যেকোনো ঘটনা বা বিষয়ের সচিত্র সংবাদ বা ভিডিওর মাধ্যমেও সর্বস্তরের সংবাদের বর্ণনা দিতে পারবেন। সাম্প্রতিককালে এটি বিশ্বব্যাপী অত্যন্ত জনপ্রিয় ধারণা হয়ে উঠেছে। কারণ অ্যাপ্লিকেশনটি জনগণকে যেকোনো সংবাদ বা ঘটনা বৃহত্তর পরিসরে শেয়ার বা বিনিময় করার সুযোগ এনে দিয়েছে।

‘লেমন ২৪’ হলো বাংলাদেশে অনলাইন রেডিও স্টেশনভিত্তিক একটি স্বতন্ত্র অ্যাপ্লিকেশন। ‘লেমন ২৪’ প্রতিদিনই ২৪ ঘণ্টাব্যাপী সম্প্রচার চালায়। আবার এটির রয়েছে দুটি মিউজিক চ্যানেল। এরমধ্যে ‘বাংলা’ নামের চ্যানেলটি লোকসঙ্গীতসহ পুরনো দিনের ও আধুনিক বাংলা গান পরিবেশন করে থাকে। আর ‘ওয়ার্ল্ড’ চ্যানেলটি বৈশ্বিক মিউজিক বা সারা দুনিয়ার গান সমপ্রচার করে।


ঢাকাভিত্তিক এমসিসি লিমিটেড নামক একটি তথ্যপ্রযুক্তি (আইটি) প্রতিষ্ঠান অ্যাপ্লিকেশন গুলো উদ্ভাবন করেছে। এই কোম্পানি সব ধরণের সোশ্যাল কমিউনিকেশন মিডিয়া মাধ্যম এবং মোবাইল টেকনোলজি নিয়ে কাজ করতে বিশেষ পারদর্শী। এমসিসি লিমিটেড নকিয়া ইস্ট এশিয়ার (EA) লিমিটেডের সঙ্গে গত দুই বছর ধরে কাজ করে আসছে এবং নকিয়া স্টোরের জন্য অত্যন্ত কার্যকরী কিছু অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপ করেছে। এই প্রতিষ্ঠান পরীক্ষার ফলাফল, আবহাওয়া তথ্য, স্টক আপডেট বা শেয়ারবাজারের সর্বশেষ খবর, বাংলা ক্যালেন্ডার ও প্রথম আলোর জন্য অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করেছে। লাখ লাখ মানুষ এসব অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করে থাকেন। এমনকি দেশের বাইরে থেকেও এই অ্যাপ্লিকেশন গুলো ডাউনলোড করা হয়।

নকিয়া স্টোর থেকে প্রতি মাসে প্রায় ৩ মিলিয়ন অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড হয়ে থাকে। নকিয়া হ্যান্ডসেট ব্যবহারকারীরা নকিয়া স্টোর থেকে এসব অ্যাপ্লিকেশন বিনামূল্যে ডাউনলোড করতে পারেন। সমপ্রতি বার্সেলোনায় বাংলাদেশের যে দুটি অ্যাপ্লিকেশন পুরস্কার জিতেছে সেগুলোও বিনামূল্যে ডাউনলোড করতে চাইলে আপনি ভিজিট করতে পারেন এই ওয়েবসাইট: www.store.nokia.com

(সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)

About mehdi

একটি উত্তর দিন