দক্ষিণ এশিয়ার ডিজিটাল রুপান্তরে নেতৃত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ: মোস্তাফা জব্বার

দক্ষিণ এশিয়ার ডিজিটাল রুপান্তরে নেতৃত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ: মোস্তাফা জব্বার

infotelগত ১১  থেকে ১৩ নভেম্বর শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোতে অনুষ্ঠিত হয়েছে তিন দিনব্যাপী তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক প্রদর্শনী ‘ইনফোটেল ২০১৬’। প্রধান অতিথি হিসেবে শ্রীলঙ্কার টেলিকমিউনিকেশন অ্যান্ড ডিজিটাল ইনফ্রাস্ট্রাকচার মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হারিন ফার্নান্দো ও বিশেষ অতিথি হিসেবে বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন। প্রতিবছর দ্য ফেডারেশন অব ইনফরমেশন টেকনোলজি ইন্ডাস্ট্রি শ্রীলঙ্কা (ফিটিস) এই প্রদর্শনীর আয়োজন করে থাকে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার ডিজিটাল বাংলাদেশ ঘোষণা, রুপান্তর, অর্জন এবং বাংলাদেশ যে তথ্যপ্রযুক্তির উদীয়মান গন্তব্যস্থল সেটি তুলে ধরেন। তিনি বাংলাদেশের সরকার, জনগণ ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ডিজিটাল রুপান্তরের বিষয়গুলো তুলে ধরার পাশাপাশি দক্ষিণ এশিয়ায় তরুণ জনসম্পদকে কাজে লাগিয়ে যে সম্ভাবনার সৃষ্টি হয়েছে তার প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তিনি বলেন যে, এই অঞ্চলের কৃষিভিত্তিক জীবনকে জ্ঞানভিত্তিক জীবনধারায় রুপান্তরে বাংলাদেশ যে নেতৃত্ব দিচ্ছে সেটি এখন সুস্পষ্ট। শ্রীলঙ্কাসহ দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলোর তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে তিনি আঞ্চলিক বাণিজ্যিক সংগঠনগুলোকে যৌথভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।
উদ্বোধনী দিন বিকেলে অনুষ্ঠিত প্রধান নির্বাহী ফোরামেও তিনি অংশগ্রহণ করেন। ফোরামের বিভিন্ন আলোচনায় তিনি অংশ নেন। এরপর বেসিস ও ফিটিসের মধ্যে এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার ও ফিটিসের চেয়ারম্যান ওয়াসানথা উইরাকুন নিজ নিজ সংগঠনের পক্ষে সমঝোতা স্বাক্ষর করেন। সমঝোতা অনুযায়ী, দুই দেশের দুই বাণিজ্য সংগঠন এই অঞ্চলের ডিজিটাল রুপান্তরে সহযোগিতা করবে। দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশের বাণিজ্য সংগঠনগুলোকে ঐক্যবদ্ধ করে তথ্যপ্রযুক্তির একটি আঞ্চলিক ফোরাম গড়ে তোলার ক্ষেত্রেও বেসিস ও ফিটিস একমত হয়।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন