ঢাকায় দুই দিনব্যাপী ‘সার্ক টেক সামিট’ শুরু হচ্ছে শুক্রবার
dav

ঢাকায় দুই দিনব্যাপী ‘সার্ক টেক সামিট’ শুরু হচ্ছে শুক্রবার

dav

dav

দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতকে সমৃদ্ধ করতে এবং আন্ত: আঞ্চলিক তথ্যপ্রযুক্তি ভিত্তিক সম্পর্ক জোরদার করতে গতবারের ন্যায় এবারেও অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘সার্ক টেক সামিট ২০১৭’। বাংলাদেশ, ভারতসহ সার্কভুক্ত অন্যান্য দেশের তথ্যপ্রযুক্তিবিদদের মধ্যে পরস্পর মত বিনিময় এবং সাইবার সিকিউরিটির নিরাপত্তার বিষয়টিকে কিভাবে আরো জোরদার করে সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যায় সেই লক্ষ্যেই এই আয়োজন। আগামী  ১১ ও ১২ আগস্ট ঢাকার ওয়েস্টিন হোটেলে দুই দিনব্যাপী এ সামিটটি অনুষ্টিত হবে। এ উপলক্ষ্যে আজ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভি আই পি লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সিটিও ফোরাম বাংলাদেশ এবং ইনফোকম, কলকাতা এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।
সংবাদ সম্মেলনে সিটিও ফোরামের সভাপতি তপন কান্তি সরকার ২ দিনব্যাপী আয়োজিত সামিটের বিভিন্ন আয়োজন ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, সারা বিশ্বে সাইবার সিকিউরিটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। প্রতিনিয়ত প্রযুক্তি পরিবর্তন এবং সেই সাথে থাকে ঝুঁকির সম্ভাবনা। তাই এ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তথ্যপ্রযুক্তিবিদদের সদা প্রস্তুত থাকতে হয়। এক্ষেত্রে এ ধরনের সম্মেলন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি। আর বিভিন্ন দেশের বিশেষজ্ঞরা তাদের পারস্পারিক মত বিনিময়ের মাধ্যমে একে অপরকে সাইবার সিকিউরিটির মোকাবেলায় তথ্য জ্ঞানে আরও সমৃদ্ধ করবে বলে আমি বিশ্বাস করি।
এবারের সার্ক টেক সামিট উদ্বোধন করবেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এমপি, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন আইসিটি বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব সুবির কিশোর চৌধুরী, তৎকালীন আইসিটি সচিব শ্যাম সুন্দর শিকদার এবং প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের (পিএমও) ডিরেক্টর জেনারেল জনাব কবির বিন আনোয়ার।
তপন কান্তি সরকার ছাড়াও সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক মো. ডা. ইজাজুল হক, সিটিও ফোরামের কোষাধ্যক্ষ এম.এ.আর মইনুল ইসলাম, সিটিও ফোরামের ভাইস প্রেসিডেন্ট দেবদুলাল রায়, সিটিও ফোরামের যুগ্মসচিব মো. আরফি এলাহি মানিক ও মোহাম্মদ আলী, কলকাতা আনন্দবাজার পত্রিকার আইটি ইনফ্রাস্ট্রাকচার এবং এর সিআইএসও এর প্রধান ব্যবস্থাপক আব্দুর রাফিসহ আরো অনেকে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।
সংবাদ সম্মেলনে তপন কান্তি সরকার জানান, তৃতীয়বারের মতো সিটিও ফোরাম বাংলাদেশ এবং ইনফোকম ইন্ডিয়ার যৌথ উদ্যোগে দুই দিনব্যাপি এ সামিট অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সার্ক চেম্বর অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাস্টির সহযোগিতায় আইটি ভিত্তিক সাম্প্রতিক আলোচনা, ব্যবসায় আইটি ব্যবহারের সুবিধা এবং নিরাপত্তা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্টিত হবে।
দেশের সঙ্গে সার্কভূক্ত অন্যান্য দেশের মধ্যকার তথ্যপ্রযুক্তি ভিত্তিক সম্পর্ক জোরদার এবং দেশগুলির তথ্যপ্রযুক্তি ভিত্তিক উন্নয়ন অভিজ্ঞতা লাভের জন্য এই আয়োজন করা হয়েছে। দুই দিনের এ সামিটে মোট নয়টি তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সেমিনার ও সিম্পোজিয়াম অনুষ্ঠিত হবে।
সামিটে তথ্য প্রযুক্তি ভিত্তিক সেমিনার গুলোতে বিগডাটা , ক্লাউড কম্পিউটিং, ডিজিটাল বিজনেজ সিকিউরিটি, এবং পাওয়ার অব প্লাস্টিক মানি সহ বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়কে গুরুত্ব দেয়া হবে। এই ধরনের আয়োজন দেশের তথ্য প্রযুক্তিবিদদের অভিজ্ঞতা অর্জন এবং দক্ষতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে বলে মনে করেন আয়োজকরা।
উল্লেখ্য, এবারের সামিটে স্থানীয় এবং বাইরের বেশ কয়েকজন নামকরা তথ্যপ্রযুক্তিবিদ অংশগ্রহন করবেন। মেলা সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। দুই দিনব্যাপী এ সামিটের প্রথম দিন দুপুর ২টা ৩০ মিনিট থেকে চলবে রাত ৯ টা পর্যন্ত। আর শেষ দিন মেলা চলবে সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। সামিটের মিডিয়া পার্টনার হিসেবে দায়িত্বরত থাকবে ডিবিসি নিউজ।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন