ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটিতে গুগল অনুবাদে সোয়া ৩ লাখ বাংলা শব্দ যোগ

ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটিতে গুগল অনুবাদে সোয়া ৩ লাখ বাংলা শব্দ যোগ

gdg bবাংলা ভাষা ও বাংলা তথ্যভাণ্ডার বিশ্বের কাছে পৌছে দিতে বড় ভূমিকা রাখতে পারে গুটল ট্রান্সলেট। আর গুগল ট্রান্সলেটে বাংলাকে সমৃদ্ধ করার দায়িত্ব আমাদেরই। সবার অংশগ্রহণে এই বিরাট কাজটি করা সম্ভব। ১১ মার্চ বুধবার গুগল ডেভেলপার্স গ্রুপ বাংলা (জিডিজি বাংলা) উদ্যোগে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা গুগল অনুবাদে ৯ দিনে মোট ৩ লাখ ২৪ হাজার ৯৭৪টি বাংলা শব্দ যোগ করেছেন। ২ মার্চ ‘বাংলা ট্রান্সলেশন এ-থন’ নামের এই কার্যক্রম শুরু হয়। গুগল ডেভলপার গ্রুপ বাংলার (জিডিজি বাংলা) উদ্যোগে বুধবার এ আয়োজনের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। ১০২৩ জন শিক্ষার্থী এই কার্যক্রমে অংশগ্রহন করে এবং ১০০ জনকে ডিআইইউ মিলনায়তনে বিকাল ৩টায় শুরু হওয়া এই অনুষ্ঠানে পুরষ্কৃত করা হয় স্মারক ও সম্মাননার মাধ্যমে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, ডিআইউ ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান সবুর খান। তিনি বলেন,‘আমরা সব ধরনের ভালো কাজের সঙ্গে আছি। আছি জিডিজি বাংলার এই সময়োপযোগী উদ্যাগের সঙ্গেও। আমার খুব ভালো লাগছে, আমার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছেলেমেয়েরা বাংলা ভাষাকে বিশ্বের দুয়ারে পৌছে দেওয়ার লক্ষে কাজ করছে এবং রেকর্ড পরিমাণ কন্টিবিউশন করেছে। আগামীতেও এই কার্যক্রমে পুরোপুরি ভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ে সম্পৃক্ত থাকবে।’
বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়াকের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান বলেন, ‘পহেলা বৈশাখে আমাদের যে ঘোষণা আছে ১০ লাখ সেটা এর অনেক আগেই পূরণ হয়ে যাবে।’ তিনি ২৬ মার্চ এক দিনে ৪ লাখ শব্দ যোগ করে বিশ্বরেকর্ড করার ঘোষনা দেন এবং এতে সবার অংশগ্রহণ কামনা করেন।
বাংলাদেশে গুগলের কান্ট্রি প্রকৌশল পরামর্শক খান মো. আনওয়ারুস সালাম বলেন, ‘এটা শুরু মাত্র। গুগলে বাংলা ভাষাকে সমৃদ্ধ করার পাশাপাশি ইন্টারনেটে বাংলার প্রসারে কাজ করে যাবে জিডিজি বাংলা।’
ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান এসো ডট কমের প্রধান নীর্বাহি দিদারুল আলম, ‘বাংলা ভাষাকে সমৃদ্ধ করার এই উদ্দ্যেগের সাথে এসো ডটকম প্রথম থেকে আছে আর থাকবে।’
জিডিজি বাংলার ব্যবস্থাপক জাবেদ সুলতান পিয়াস বলেন, ‘ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের মত তরুণদের এমন অংশগ্রহনই পারে ইন্টারনেটে বাংলাকে আরো সমৃদ্ধ করতে।’ গুগল অনুবাদে শব্দযোগের এই কার্যক্রম চলবে পয়লা বৈশাখ পর্যন্ত। পয়লা বৈশাখে যারা সবচেয়ে বেশি শব্দযোগ করবেন তাদের পুরস্কৃত করা হবে।’
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যামিরেটস প্রফেসর আমিনুল ইসলাম, হাইফাই পাবলিকের প্রধান কারিগরি কর্মকর্তা শাফকাত আলম, জিডিজি বাংলার কমিউনিকেশন অ্যাসোসিয়েট রাহিতুল ইসলাম রুয়েলসহ অনেকে।
অনুষ্ঠানের প্রথমে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভাসিটির মতিউর রহমান এবং তিতাস আহমেদকে জিডিজি বাংলার প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় দূত হিসেবে ঘোষণা দেওয়া হয়।
গত ডিসেম্বর মাসে ‘সীমানা ছাড়িয়ে বাংলা’ শ্লোগানে ইন্টারনেটে বাংলা ভাষাকে ছাড়িয়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে শুরু হয় বাংলার জন্য বিশেষ গুগল ডেভেলপারস্ গ্রুপ জিডিজি বাংলার কার্যক্রম। এ আয়োজনে সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন), ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান এসো ডট কম এবং হাই-ফাই পাবলিক ডট কম। আগ্রহীরা জিডিজি বাংলার (http://goo.gl/WuXLKp) সঙ্গে যুক্ত হয়ে গুগল ট্রান্সলেশনে বাংলাকে সমৃদ্ধ করে তুলতে পারবেন।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন