টেলিটক গ্রাহকরা থ্রিজি ভোগান্তিতে পড়েছেন

টেলিটক গ্রাহকরা থ্রিজি ভোগান্তিতে পড়েছেন

থ্রিজি ভোগান্তিতে পড়েছেন টেলিটক গ্রাহকরাদেশে মুঠোফোনে থ্রিজি সেবা চালু করতে না করতেই ভোগান্তিতে পড়েছেন টেলিটক গ্রাহকরা। গত সোমবার মধ্যরাতের পর থেকে টুজি সিম থ্রিজিতে মাইগ্রেট করতে গেলে এ সমস্যা দেখা দেয়। মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত এই ভোগান্তির অবসান হয়নি।

গ্রাহদের অভিযোগ, বিনা নোটিশেই নেটওয়ার্ক ও সেবা সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়েছে তাদের। টেলিটক থেকে অন্য মোবাইলে ফোন করতে দফায় দফায় বিড়ম্বনায় পড়ছেন তারা। অন্য অপারেটর থেকেও টেলিটকে ফোন আসেনি। এ বিষয়ে অভিযোগ জানাতে বারবার টেলিটক কাস্টমার কেয়ারে ফোন করেও সেখান থেকে সাড়া না মেলেনি।

থ্রিজি সেবাতেও বিদেশী অপারেটরদের আধিপত্য বিস্তার করতে টেলিটক’র অসাধু কর্মকর্তাদের যোগসাজশে সেবা নিয়ে এমন ভোগান্তির সৃষ্টি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন টেলিটক এর নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক গ্রাহক। তাদের অভিযোগ, সেবা দিতে কারিগরি মানোন্নয়নে কিছুটা সমস্যা হতেই পারে। তাই বলে কি একটি ক্ষুদে বার্তা দিয়ে জানানো খুব কঠিন কিছু? কাস্টমার কেয়ারে বারবার ফোন দিয়েও কেন পাওয়া যাবে না?

প্রসঙ্গত, গত সোমবার রাত থেকে টেলিটক নেটওয়ার্ক আপগ্রেডেশনের কাজ শুরু করে। ওই সময় থেকেই সমস্যায় পড়েন সারা দেশের গ্রাহকরা। টেলিটক সূত্রে জানা গেছে, নেটওয়ার্ক ভোগান্তিতে পড়া গ্রাহকের সংখ্যা ১০ হাজারের বেশি হবে। এ বিষয়ে টেলিটকের বিপণন বিভাগের মহাব্যবস্থাপক হাবিবুর রহমান বলেন, “পুরনো গ্রাহকদের মধ্যে যারা টুজি থেকে থ্রিজিতে উন্নীত হচ্ছিলেন তাদেরই এ সমস্যা হয়েছে। আশা করি স্বল্প সময়ের মধ্যে সব ঠিক হয়ে যাবে। এখন যেসব সিম বিক্রি হচ্ছে তার সবই থ্রিজি ফলে আগামীতে আর এ সমস্যা হবে না।” তিনি জানান, সমস্যা এড়াতে কিছু কৌশল হাতে নেয়া হয়েছে।

জানা জায়, টুজি সিমকে থ্রিজিতে উন্নীত করতে গেলে পুরনো সিম তা সাপোর্ট করেনি। ফলে সিম অকার্যকর হয়ে যায়। টেলিটক কর্তৃপক্ষ ওই সিমের বদলে নতুন থ্রিজি সিম সরবরাহ করবে গ্রাহকদের।

টেলিযোগাযোগ খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের অভিমত, সব ধরনের প্রস্তুতি না নিয়েই টেলিটকের থ্রিজি চালু করায় এ সমস্যা হচ্ছে। আগামীতে অপারেটরটিকে এ ধরনের আরো সমস্যায় পড়তে হবে বলে তারা আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছেন, ‘গ্রাহক সংখ্যা বাড়লে সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করতে পারে।’

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, টেলিটক অবকাঠামো নির্মাণের কাজ এখনো শেষ করতে পারেনি। দেশীয় ৫টি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেলগুলোর সঙ্গে লিংক তৈরির প্রাথমিক কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এসব বাস্তবায়ন করতে আরো সময় প্রয়োজন। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক স্যাটেলাইট চ্যানেলগুলোর লিংক শেয়ার, কনটেন্ট প্রোভাইডারদের সঙ্গে চুক্তির বিষয়গুলোও সম্পন্ন না হওয়ায় আপাতত থ্রিজি দিয়ে স্যাটেলাইট টিভিতে সরাসরি খেলা দেখা আপাতত সম্ভব হবে না।


About বিদ্যুৎ বিশ্বাস

একটি উত্তর দিন