জমে উঠেছে খুলনার ডিজিটাল এক্সপো ২০১২

জমে উঠেছে খুলনার ডিজিটাল এক্সপো ২০১২


বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি খুলনা শাখার আয়োজনে গতকাল ১৪ জানুয়ারি খুলনার হোটেল নিউ টাইগার গার্ডেনে শুরু হওয়া খুলনার বৃহৎ এই কম্পিউটার মেলার ‘বিসিএস ডিজটাল এক্সপো খুলনা ২০১২’ জমে উঠেছে দর্শনার্থীদের পদচারণায়। সকাল থেকেই প্রদর্শনীতে দর্শকদের ভীড় বাড়তে শুরু করে। প্রর্দশনীতে প্রতিটি প্রতিষ্ঠান তাদের প্রযুক্তি পণ্যের উপর নগদ ছাড় ও উপহার দেয়। আগত দর্শনার্থীরা ল্যাপটপ এবং সমজাতীয় পণ্য ছাড়াও নিত্য ব্যবহার্য অন্যান্য প্রযুক্তি পণ্যের প্রতিও তাদের আগ্রহ দেখাচ্ছে। দর্শনার্থীরা প্রযুক্তি পণ্য দেখা ছাড়াও নিজের প্রয়োজন ও সাধ্যকে বিবেচনায় নিয়ে কিনে নিচ্ছে তার পণ্যটি। প্রদর্শনীতে প্রবেশ টিকেটের উপর প্রতিদিন থাকছে র‍্যাফেল ড্র। এছাড়াও মেলার গেমিং জোনে ছিল শিশুদের উপচে পড়া ভীড়। শুধু গেম খেলা নয় সেখানে আয়োজন করা হয় গেমিং প্রতিযোগিতারও। ফ্রি ইন্টারনেট ব্রাউজিং ছাড়াও নানা আয়োজন ছিল দর্শনার্থীদের জন্য।

প্রদর্শনীতে তথ্যপ্রযুক্তির ২৭ টি স্থানীয় ও দেশী প্রতিষ্ঠান প্রায় ২০,০০০ বর্গফুট স্থান জুড়ে ৩৯টি স্টলে তাদের প্রযুক্তি পণ্য প্রর্দশন করছে। প্রদর্শনীতে প্রবেশমূল্য সাধারণ দর্শকদের জন্য ১০ টাকা ধার্য করা হয়েছে। বিসিএসের অন্যান্য প্রদর্শনীর মতো এবারও স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র প্রদর্শন সাপেক্ষে বিনামূল্যে প্রদর্শনীতে প্রবেশ করতে পারবে

প্রদর্শনীর প্রতিদিন সন্ধ্যায় সাস্কৃতিক অনুষ্ঠান ছাড়াও প্রতিদিনের টিকেটের উপর রয়েছে র‍্যাফেল ড্র এবং তাতে থাকছে আকর্ষনীয় পুরষ্কার। মেলায় ইন্টারনেট ফ্রি ব্যবহারের সুযোগ থাকছে দর্শনার্থীদের। পাশাপাশি অনলাইন ভিডিও স্ট্রিমিং, আইপি টিভি, অনলাইন রেডিও, ইন্টারনেট গেমিং ইত্যাদি ব্যবহারের ব্যবস্থা থাকছে। আর শিশুদের জন্য থাকছে মজাদার ভিডিও গেম খেলার সুযোগ।


১৬ জানুয়ারি সকাল ১১ টায় প্রর্দশনীর ৩য় দিন থাকছে শিশুতোষ চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। তিনটি গ্রুপে  বিভক্ত হয়ে শিশুরা এ প্রতিযোগিতায় অংশ নেবে। বয়সভিত্তিক তিনটি গ্রুপে স্কুল শিক্ষার্থীরা এতে অংশ নিতে পারবে। প্রতিযোগিতার গ্রুপ ও বিষয়গুলো হলো _ ক গ্রুপ (বয়স: ৩-৬ বছর): যেমন খুঁশি তেমন আঁকো, খ গ্রুপ (৭-৯ বছর) : কম্পিউটার/ল্যাপটপ/তথ্যপ্রযুক্তি এবং গ গ্রুপ(১০-১২ বছর): ডিজিটাল বাংলাদেশ। সৈয়দ এ জলিল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব মো: মনিরুল ইসলাম অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করবেন।

প্রর্দশনীটির প্লাটিনাম স্পন্সর হিসেবে থাকছে ফোর জি প্রযুক্তির ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালায়ন কমিউনিকেশন্স লিমিটেড, গোল্ড স্পন্সর হিসেবে থাকছে বিশ্বখ্যাত ল্যাপটপ ব্র্যান্ড ফুজিতসু এবং দেশীয় আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান ইউনাইটেড কম্পিউটার সেন্টার (ইউসিসি); সিলভার স্পন্সর হিসেবে থাকছে সাড়া জাগানো ল্যাপটপ ব্র্যাণ্ড আসুস এবং বিশ্বখ্যাত এনটিভাইরাস আভিরা। প্রর্দশনীর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার স্পন্সর কম্পিউটার সলিউশন ইঙ্ক, টিকেট ও ডিনার স্পন্সর আরএম সিষ্টেমস লিমিটেড, টিকেট কাউন্টার স্পন্সর সোর্স এজ লিমিটেড, ভলান্টিয়ার ড্রেস স্পন্সর ইমাম টেলিকম, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান স্পন্সর বিজসেনল্যান্ড।

(সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)

About mehdi

একটি উত্তর দিন