জনতা টাওয়ারস্থ সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে বিআইজেএফ’র স্থায়ী কার্যালয়

জনতা টাওয়ারস্থ সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে বিআইজেএফ’র স্থায়ী কার্যালয়

ঢাকার কারওয়ান বাজারে অবস্থিত সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক পরিদর্শন করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। গত ৪ মার্চ মঙ্গলবার এ সফটওয়্যার পার্ক পরিদর্শন কালে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কতৃপক্ষ নামের পরিত্যক্ত কক্ষে ৫০ লক্ষ টাকার ভিডিও কনফারেন্সের যন্ত্র পড়ে থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ।

করেন তিনি। এ সময় বর্তমানে ভবনটির বেজমেন্টে থাকা কারওয়ান বাজারের মালামাল গোডাউনটি সঙ্গে সঙ্গে উচ্ছেদের নিদের্শ দেন তিনি।
ভবনটি বর্তমানে তিন তলায় বিভিন্ন অফিস তাদের কার্যক্রম চালাচ্ছে। এরমধ্যে ছয় তলায় মিলিনিয়াম সলিউশন লিমিটেড, সাত তলায় স্কয়ার ইনফরমেটিকস লিমিটেড এবং এগোরো তলায় ই-সফটওয়্যার নামে তিনটি প্রতিষ্ঠান কাজ করছে। তবে জনতা টাওয়ারের ভবনটি বাইরে থেকে দেখলে বোঝার উপায় নেই যে ভিতরে কোন প্রতিষ্ঠান তাদের কাজ করছে!

Hi Tech Park Visit

সফটওয়্যার পার্কের এমন অবস্থা বিষয়ে জুনাইদ আহমেদ পলক জানান, ‘মহামান্য আদালতের যে নির্দেশ আছে এই নির্দেশটি আমরা আবার পর্যবেক্ষন করে দেখবো।’ তিনি বলেন, এর আগে সামগ্রিক ব্যবস্থাপনার কাজ যে প্রতিষ্ঠানকে দেয়া হয়েছে তারা তাদের শর্ত ভঙ্গ করেছে এবং বিলম্ব করেছে। সফটওয়্যার পার্ক বাস্তবায়নের মধ্যে তাদের যে সময়ের মধ্যে করার কথা ছিলো তারা তা করতে পারেনি এবং ভবনের প্রত্যেকটি ফ্লোর যেভাবে ব্যবহার হওয়ার কথা ছিলো সেটিও হয়নি। ফলে তাদের সাথে চুক্তি বাতিল হয়। তিনি বলেন, ‘বর্তমানে ভবনটি বিভিন্ন অব্যবস্থাপনার মধ্যে রয়েছে। তবে আশা করছি খুব শীঘ্রই এটিকে পূর্ণাঙ্গ সফটওয়্যার পার্ক হিসেবে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে সব ধরনের কাজ সম্পন্ন করা সম্ভব হবে।

তিনি আরো বলেন, তথ্যপ্রযুক্তির বিপ্লবের এ যুগে দেশের ভাবমূর্তি নির্মাণ, কর্মসংস্থান ও বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের বিকল্প নেই। এ জন্য জনতা টাওয়ারের পাশাপাশি গাজীপুরের কালিয়াকৈর, যশোর, রাজশাহীসহ দেশের বিভাগীয় ও বিভিন্ন জেলা শহরে সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক স্থাপনের কাজ চলছে।

পরিদর্শনকালে প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে থাকা বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) সভাপতি শামীম আহসান জানান, অনেক দিন ধরেই সফটওয়্যার পার্কের কার্যক্রম চালুর বিষয়টি স্থগিত হয়ে আছে। আমরা আশা করছি যে এবার প্রতিমন্ত্রীর উদ্যোগে খুব দ্রুত পার্কটি চালু হবে।
এ ভবনটিতে রয়েছে অবৈধ দোকান এবং পার্কিং। সফওয়্যার পার্ক পরিদর্শন কালে বাংলাদেশ আইসিটি জানালিস্ট ফোরামের (বিআইজেএফ) সভাপতি মুহম্মদ খানকে প্রতিমন্ত্রী জানান, বিআইজেএফ সফটওয়্যার টেকনালজি পার্কে তাদের নিজস্ব কার্যালয়ের কার্যক্রম শুরু করতে পারে এবং সেটা এখন থেকেই সম্ভব।

About অঞ্জন দেব

একটি উত্তর দিন