চীনা বিজ্ঞানীরা ইন্টারনেট সংযোগের নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছেন

 

ইন্টারনেট সংযোগ দেয়ার নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছেন চীনা বিজ্ঞানীরা। যার নাম লাইফাই। লাইট এমিটিং ডায়োড (এলইডি) বাতির মাধ্যমে এ সংযোগের কাজটি করা হয়ে থাকে। যা ওয়াইফাইয়ের চেয়ে অনেক সহজ ও নিরাপদে তথ্য স্থানান্তর করা যাবে বলে দাবি বিজ্ঞানীদের। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

সাংহাইয়ের ফুদান বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যপ্রযুক্তি অধ্যাপক ও চীনা গবেষকদলের প্রধান চি নান জানান, নতুন পদ্ধতিতে একটি এক ওয়াটের এলইডি বাতির মাধ্যমে চারটি কম্পিউটারে ইন্টারনেট সংযোগ দেয়া যাবে। এক্ষেত্রে বাতিটিই নেটওয়ার্ক ক্যারিয়ার হিসেবে কাজ করবে। বাতিনির্ভর এ পদ্ধতিকে বলা হচ্ছে লাইট ফাইডেলিটি (লাইফাই)। এ ধরনের বাতিতে অবশ্য বিশেষ কয়েকটি মাইক্রোচিপ সংযোজন করা হয়েছে, যার মাধ্যমে সেকেন্ডে ১৫০ মেগাবাইট গতিতে তথ্য আদান-প্রদান করা যাবে।

লাইফাইয়ের ধারণাটা অবশ্য একেবারে নতুন নয়। এ নাম সর্বপ্রথম দেন এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হ্যারাল্ড হাস। তিনিই প্রথম দেখান যে, দৃশ্যমান আলোর (ভিজিবল লাইট কমিউনিকেশন- ভিএলসি) মাধ্যমে নেটওয়ার্কভিত্তিক তথ্য আদান-প্রদান সম্ভব।

লাইফাইকে বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহারের জন্য এরই মধ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছেন চীনারা। আগামী ৫ নভেম্বর সাংহাইয়ে অনুষ্ঠেয় চীনা আন্তর্জাতিক শিল্প মেলায় ১০টি আলাদা আলাদা ধরনের লাইফাই যন্ত্রাংশ প্রদর্শন করা হবে।

About বিদ্যুৎ বিশ্বাস

একটি উত্তর দিন