চার মাস পর বেড়েছে মোবাইল গ্রাহক

চার মাস পর বেড়েছে মোবাইল গ্রাহক

বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম রি-রেজিষ্ট্রেশন শুরুর পর সব মোবাইল অপারেটরদের সিম বিক্রি কমে গিয়েছিল। সেই সঙ্গে কমেছিল ইন্টারনেট গ্রাহক ও এর ব্যবহার। তিন মাসে ২৮ লাখের বেশি সিম বন্ধও হয়েছিল। তবে গত চার মাস পর এপ্রিলে এসে এবার মোবাইল গ্রাহক বেড়েছে, সংখ্যায় তা ১০ লাখেরও বেশি। সেই সঙ্গে বেড়েছে ইন্টারনেট গ্রাহকের সংখ্যাও।
বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) প্রকাশিত সর্বশেষ পরিসংখ্যানে এ তথ্য জানা গেছে।
টানা তিনমাস দেশে কার্যকর সিমের সংখ্যা কমতে থাকলেও সেখান থেকে খানিকটা হলেও ঘুরে দাঁড়িয়েছে মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো। এপ্রিলে আগের মাসের তুলনায় কার্যকর সিম ১০ লাখ ৬৮ হাজার বেড়েছে। তবে সিটিসেল ও এয়ারটেল তাদের সংযোগ সংখ্যা বাড়াতে পারেনি।
এপ্রিলে দেশে ইন্টারনেট গ্রাহকের সংখ্যা বেড়েছে ৭ লাখের কিছু বেশি। আইএসপি বা ল্যান্ডফোনের সংযোগ এই মাসে ১ লাখ ৭ হাজার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩২ লাখ ১৯ হাজারে। তবে বরাবরের মতো ওয়াইম্যাক্সের গ্রাহক কমে দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ২৪ হাজারে। এপ্রিল শেষে দেশে মোট ইন্টারনেট গ্রাহকের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ কোটি ২০ লাখ ৪ হাজারে। মার্চ শেষে এ সংখ্যা ছিল ৬ কোটি ১২ লাখ ৮৮ হাজার।
উল্লেখ্য, এ বছর জানুয়ারি শেষে দেশে মোবাইল ফোনের গ্রাহক ছিল ১৩ কোটি ১৯ লাখ ৫৬ হাজার। ফেব্রুয়ারির শেষে তা কমে দাঁড়ায় ১৩ কোটি ১০ লাখ ৮৫ হাজার। মার্চে আরো কমে এ সংখ্যা দাঁড়ায় ১৩ কোটি ৮ লাখ ৮১ হাজারে।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন