চলতি মাসেই মিয়ানমারে অ্যাসোসিও অ্যাওয়ার্ড

চলতি মাসেই মিয়ানমারে অ্যাসোসিও অ্যাওয়ার্ড

asocioচলতি মাসে মিয়ানমারের রাজধানী ইংয়াগুনের নভোটেল ইয়াংগুন ম্যাক্স হোটেলে ‘২০১৬ অ্যাসোসিও অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান অনুষ্ঠান এবং অ্যাসোসিও’র সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ থেকে একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল এইসব অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবে।
১৪ থেকে ১৬ নভেম্বর এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি’র শীর্ষ সম্মেলন অ্যাসোসিও ‘২০১৬ অ্যাসোসিও আইসিটি সামিট’ আয়োজন করতে যাচ্ছে।
শনিবার দুপুরে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি ইনোভেশন সেন্টারে দেশের সংবাদ মাধ্যম সমূহকে সংক্ষেপে এ সকল বিষয়ে জানানোর উদ্দেশ্যে সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি’র (বিসিএস) সভাপতি আলী আশফাক বলেন, মায়ানমারের পরিবহন ও যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় ‘একসেলেরেট ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশন থ্রু লিভারেজিং আশিয়ান ইকোনোমিক কমিউনিটি অপচ্যুনিটিস’ (Accelerate Digital Transformation through Leveraging ASEAN Economic Community (AEC) Opportunities) প্রতিপাদ্য বিষয়সম্বলিত এ বছর এই সম্মেলন মায়ানমার কম্পিউটার ফেডারেশন (এমসিএফ) আয়োজনের দায়িত্ব পালন করছে।
এতে প্রযুক্তিবিদ এবং আইসিটি নীতি নির্ধারণী ব্যক্তিবর্গ একাধিক বিষয়ের উপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন এবং প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন।
বিটুবি নেটওয়ার্কিং, বিজনেস ম্যাচমেকিং, আইসিটি ব্যবসা ও উন্নয়নে আন্তঃদেশীয় একাধিক চুক্তিস্বাক্ষর, পুরস্কার প্রদান ইত্যাদি বিষয় সম্মেলনকে ঔজ্জ্বল্যমান করে তুলবে। প্রযুক্তি এবং ব্যবসা সংক্রান্ত বিষয়াদির বাইরে একই স্থানে অ্যাসোসিও’র বার্ষিক সাধারণ সভা এবং নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ থেকে একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল ‘২০১৬ অ্যাসোসিও আইসিটি সামিট’ -এ অংশগ্রহণ করবে।
আইসিটি ডিভিশনের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের নেতৃত্বে সরকারি এবং বেসরকারি পর্যায়ের ২০ জন সদস্য প্রতিনিধি দলে অন্তর্ভুক্ত থাকবেন। বিটুবি নেটওয়ার্কিং ও বিজনেস ম্যাচ মেকিং, একাধিক বিদেশি কোম্পানির সাথে চুক্তি স্বাক্ষর, পুরস্কার গ্রহণ এবং মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনের মাধ্যমে এই শীর্ষ সম্মেলনে বাংলাদেশের আইসিটি খাতকে তুলে ধরার সুযোগ মোক্ষমভাবে কাজে লাগানোর ব্যবস্থা করা হবে। বি্সিএস সহ-সভাপতি ইউসুফ আলী শামীম বলেন,  আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সম্মেলনের শেষ দিন দুপুরে ‘আউটরিচ টু এ ডিজিটাল বাংলাদেশ’ শীর্ষক একটি মূল প্রবন্ধ সম্মেলনে উপস্থাপন করবেন।
তাছাড়া, মায়ানমারের সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন মন্ত্রীর সঙ্গে প্রতিমন্ত্রীর একটি দ্বিপাক্ষিক আলোচনার সময়সূচি নির্ধারণের বিষয়টি চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।
তিনি আরো বলেন, আমরা অত্যন্ত আশাবাদী বাংলাদেশের দু’টি নামকরা প্রতিষ্ঠান ‘ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ এবং ‘আউটস্ট্যান্ডিং কোম্পানি অ্যাওয়ার্ড’ এই দুই ক্যাটাগরিতে পুরস্কারে ভূষিত হবে। আইসিটি ডিভিশন এবং স্মার্ট টেকনোলজিস লিমিটেডকে এই দুইটি অ্যাওয়ার্ডের জন্য মনোনীত করা হয়েছে।
আবার বিসিএস-এর কয়েকটি সদস্য কোম্পানি মায়ানমার ও অন্য দুয়েকটি দেশের কয়েকটি কোম্পানির সঙ্গে আইসিটি ব্যবসাচুক্তি স্বাক্ষর করবে বলে নিশ্চিত হয়েছে। তাছাড়া, পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে কিভাবে দুই দেশের মধ্যে আইসিটি খাতের ব্যবসা বাণিজ্য সম্প্রসারণ এবং এই খাতের উন্নয়ন করা যায়, সেসব নিয়ে বিসিএস ও এমসিএফ আলোচনা এবং প্রয়োজনে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষর করবে।
বিসিএস মহাসচিব ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার বলেন, শীর্ষ সম্মেলনের পাশাপাশি অনুষ্ঠেয় অ্যাসোসিও’র সাধারণ সভায় বিসিএস-এর পরিচালকবৃন্দ অংশগ্রহণ করবেন। সেখানে অ্যাসোসিও’র অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হিসেবে অন্তর্ভুক্ত থাকবে। ২০১৭-২০১৮ মেয়াদকালে দুই বছরের জন্য উক্ত সংস্থার গভর্নিং কাউন্সিল নির্বাচিত করা। উক্ত নির্বাচনে বিসিএস সভাপতি জনাব আলী আশফাককে ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। নির্বাচনে তিনি জয়লাভ করবেন বলে আমরা অত্যন্ত আশাবাদী।
বিসিএস যুগ্ম-মহাসচিব নাজমুল আলম ভূঁইয়া (জুয়েল) বলেন, সামগ্রিকভাবে আমরা আশা প্রকাশ করছি ‘২০১৬ অ্যাসোসিও আইসিটি সামিট’-এ অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশের আইসিটি খাতে বড় ধরণের অর্জন সাধিত হবে। সম্মেলন চলাকালীন মায়ানমারের ইয়াংগুন থেকে ‘২০১৬ অ্যাসোসিও আইসিটি সামিট’-এর উপর গণমাধ্যমসমূহকে নিয়মিতভাবে হালনাগাদ তথ্য সরবরাহের ব্যবস্থা থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করছি।
বিসিএস পরিচালক এস.এম ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, ‘আইসিটি ডিভিশনের সঙ্গে সমন্বয় সাধন পূর্বক বিসিএস সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মিয়ানমারস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস, মালয়েশিয়ায় অবস্থিত অ্যাসোসিও’র প্রধান কার্যালয়, আয়োজক প্রতিষ্ঠান মায়ানমার কম্পিউটার ফেডারেশন এবং আগ্রহী প্রতিনিধিবৃন্দের সাথে যোগাযোগ ও তথ্য আদান প্রদানের মাধ্যমে ‘২০১৬ অ্যাসোসিও আইসিটি সামিট’-এ বাংলাদেশের সফল অংশগ্রহণের ব্যবস্থা করার দায়িত্বে রয়েছে।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন