গুগল টিভি আগামী ২০১৩ সালেই

আগামী ২০১৩ সালেই গুগল টিভিদরজায় করা নারছে ২০১৩ সাল। নতুন বছরে প্রযুক্তির বাজারে আবারো সুখবর নিয়ে আসছে গুগল। ওয়েব ব্রাউজার থেকে শুরু করে স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট পিসি’র জন্য অপারেটিং সিস্টেম এবং পিসি’র জন্যও ওয়েবনির্ভর অপারেটিং সিস্টেম বাজারে এনে ইতিমধ্যেই বেশ নজরকেড়েছেন প্রযুক্তিপ্রেমীদের।

তারই ধারাবাহীকতায় আগামী বছরের শুরুতেই বাজারে আনছে গুগল টিভির ২য় সংষ্করণ। এই সংষ্করণের গুগল টিভি’র ইন্টারফেস হবে আরও সহজ এবং সাধারন। এতে ইন্টারনেটে টিভি কনটেন্ট আগের চেয়ে অনেক সহজে খুঁজে বের করার ব্যবস্থা রয়েছে।

এর পাশাপাশি এবার গুগল টিভি’র জন্য অ্যাপ্লিকেশন তৈরির বিষয়টিও উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে সকলের জন্য। ডেভেলপাররা এখন চাইলেই গুগল টিভি’র জন্য বিশেষায়িত অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করতে পারবেন। এর সাথে অন্যান্য অ্যানড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন চালানোর এবং গেম খেলার ব্যবস্থাতো রয়েছেই।

ইন্টারনেট সংযোগ থাকায় খুব সহজেই গুগল টিভিতে ব্যবহার করা যাবে ইউটিউব এবং নেটফ্লিক্স সার্ভিস। এতে ইউটিউবের ভিডিওগুলো আরও সহজে খুঁজে বের করা যাবে। গুগল টিভিতে এসব নতুন ফিচার চালু হলেও এবিসি, এনবিসি বা সিবিএস এর মত বড় বড় টেলিভিশন নেটওয়ার্ক এখনও রয়ে গেছে গুগল টিভি’র ধরা ছোঁয়ার বাইরে।

এসব টেলিভিশন নেটওয়ার্ক গুগল টিভিতে যুক্ত হলে গুগল টিভি’র জনপ্রিয়তা খুব অল্প সময়ের মধ্যেই অনেক বেড়ে যেত বলে বিশ্লেষকদের ধারণা। তা না হলেও নতুন ইন্টারফেসের গুগল টিভি এর জনপ্রিয়তাকে অনেকখানি বাড়িয়ে দিতে সক্ষম হবে বলেই আশা করছে গুগল।

গুগল জানিয়েছে, আসছে বছরে দুটো গুগল টিভি বাজারে আনবে এলজি। এ দুটি টিভিতেই থাকবে কোয়ার্টি রিমোর্ট কন্ট্রোল আর ন্যাচারাল স্পিচ রিকগনিশন
ফিচার।আসছে দুটি মডেল হচ্ছে জিএ৭৯০০ (৫৫ এবং ৪৭ ইঞ্চি) এবং জিএ৬৪০০ (৬০ ইঞ্চি থেকে ৪২ ইঞ্চি পর্যন্ত)। এ দুটি মডেলে আছে কোয়ার্টি মোশন রিমোট কন্ট্রোল।

সঙ্গে আছে ভয়েস কমান্ডের বাড়তি ফিচার। একেবারেই ভিন্ন অবয়বের এ মডেল দুটি নতুন ধারার টেলিভিশনের অভিজ্ঞতা তুলে ধরবে বিনোদনপ্রেমীদের
সামনে। এ ছাড়াও প্যাসিভ মোডে থ্রিডি সিনেমা দেখারও সুযোগ তৈরি হবে এ গুগল টিভির মাধ্যমে। গুগল জিএ৭৯০০ মডেলের টিভির অন্যতম বৈশিষ্ট্য এলইডি টিভি।

এর রিফ্রেশ রেট ২৪০ হার্টজ। আছে ব্যাকলাইট স্ক্যানিং সুবিধাও। অন্যদিকে গুগল জিএ৬৪০০ মডেলের টিভির অন্যতম বৈশিষ্ট্য এডজ ডিসপ্লে। এর রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ। মডেল দুটির মূল পার্থক্যের মধ্যে আসলে এটাই প্রধান।

গুগল টিভির এ দু মাধ্যমেই আছে হানিকম্ব ৩.২ সংস্করণ। ফলে ট্যাব এবং স্মার্টফোনে ব্যবহরযোগ্য যেকোনো অ্যাপই এ টিভিতেও উপভোগ করা সম্ভব। দামের বিষয়ে এখনও সুনির্দিষ্ট তথ্য পাওয়া যায়নি।


About বিদ্যুৎ বিশ্বাস

একটি উত্তর দিন