গুগলের নতুন অপারেটিং সিস্টেম Jelly Bean 4.1

গুগলের নতুন অপারেটিং সিস্টেম Jelly Bean 4.1

এন্ড্রয়েড এর নতুন ভার্সন, এন্ড্রয়েড ৪.১ জেলী বীন । এটা ঘোষণা করা হয়েছে ২৭ জুন ২০১২।

এন্ড্রয়েড এর নতুন ভার্সন, এন্ড্রয়েড ৪.১ জেলী বীন এর কিছু নতুন ফিচার :

Smart Widgets

গুগল এর এই ভার্সন এ আপনি  Widgets গুলা আরও customize, resize করতে পারবেন । এতে আপনি home screen এ যত খুশি widgets ব্যাবহার করতে পারবেন, এবং drag & drop এর মাধ্যমে সেগুলো নিজেদের মত resized হয়ে জায়গা করে নিবে।

Additions to Google Beam

এন্ড্রয়েড ৪.১ জেলী বীন এ Google Bean ব্যাবহার করতে পারবেন আরও সহজে । আগে যেখানে শুধু file transfer বলতে  images, videos, or other payloadsএর সুবিধা ছিল এই Google beam এর মাধ্যমে , এখন additional হিসেবে পাবেন wireless connectivity । শুধু phone এ tap করলেই bluetooth এবং NFC এর মাধ্যমে যেকোনো data transfer হবে আরও সহজ। এমনকি map transfer ও করতে পারবেন ।

Google Now and Voice Search

Apple siri র মত জেলি বীন এ আছে Google Now and Voice Search এর সুবিধা । Siri র search option ছিল over the air যেখানে আপনার ফোন কে internet এর সাথে যুক্ত করা লাগত, কিন্তু Android Jelly Bean এর Google Now এ আছে Offline voice Search এর সুবিধা । যেখানে আপনি আরও সহজে যেকোনো কিছু search করতে পারবেন ।

Offline Maps

Google Map দেখার জন্য আপনাকে আর online এ যাওয়ার প্রয়োজন নাই। আপনি চাইলে map আপনার ফোন এ download করে নিতে পারেন পরবর্তীতে দেখার জন্য।

গুগল এর ট্যাবলেট: নেক্সাস ৭ এ এই নতুন OS জেলী বীন ব্যাবহার করতে পারবেন যার বাজার মূল্য ধরা হয়েছে 200$ যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১৬০০০৳ মাত্র ।

এন্ড্রয়েড ৪.১ জেলী বীন

এন্ড্রয়েড ৪.০ আইস ক্রিম স্যান্ডউইচ, যেটা পারফর্মেন্স, ইন্টারফেস এর দিক দিয়ে অলরেডি অনেক অনেক এগিয়ে গেছে আগের এন্ড্রয়েড গুলোর থেকে। তার পরও এই জেলি বীন আগের ভার্সন থেকে অনেক আলাদা।গুগল একটি প্রজেক্ট হাতে নিয়েছে জার নাম প্রজেক্ট বাটার, কারন গুগলের দাবি এর মাধ্যমে তাদের লেটেস্ট এই ওএস এর ইন্টারফেস চলবে মাখনের মত smooth, আর তাই এই নাম মাখন ওরফে BUTTER । তাই নিঃসন্দেহে  ৪.১ হবে আরও ফাস্ট !

কোয়াড কোর প্রসেসর

জেলি বীন সহ গুগল এর ট্যাবলেট: নেক্সাস ৭ এ থাকছে কোয়াড কোর প্রসেসর। এতদিন শুধু পিসি তে কোয়াড কোর প্রসেসর থাকত, কিন্তু এই ট্যাবলেট এও তাই আছে! ১.৩ গীগাহার্জ এনভিডিয়া টেগরা প্রসেসর পাবেন  এতে ! এটা বিশ্বের প্রথম ৭ইঞ্চি কোয়াড কোর ট্যাবলেট। এর আগেও কিছু কোয়াড কোর ট্যাবলেট বাজারে এসেছে কিন্তু সেসবের দাম ২০০ ডলার এর চেয়ে ঢের বেশি।

12  কোর গ্রাফিক্স কার্ড

এটায় গেমিং এর জন্য 12 কোর বিশিষ্ট এনভিডিয়া GPU আছে। তাই এতে আপনি ফুল থ্রিডি গেমিং এর স্বাদ পাবেন। আর এন্ড্রয়েড মার্কেট ছাড়াও টেগরা জোন নামে একটি স্পেশাল অ্যাপ স্টোর আছে, যেখানে শুধু টেগরা প্রসেসর যুক্ত ডিভাইস এ যেসব গেইম চলে তাই পাওয়া যায়।

7 ইঞ্চি এইচ ডি ডিসপ্লে

7 ইঞ্চি স্ক্রিনে পাবেন 1280 x 800 পিক্সেল এর resolution। প্রতি ইঞ্চিতে216 পিক্সেল থাকায় ঝকঝকে ও ক্লিয়ার ছবি পাবেন। আর এটার ডিসপ্লে স্ক্রিনে ব্যবহার করা হয়েছে গরিলা গ্লাস, যা অনেক শক্ত ও মজবুত এবং স্ক্র্যাচ প্রুফ।

আরও কিছু ফিচার আছে এতে :

  • ৮ অথবা ১৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ
  • ১জিবি র‍্যাম
  • ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • ওয়াই-ফাই + ব্লু-টুথ
  • ১০ ঘণ্টার ব্যাটারি টাইম
  • মাইক্রো ইউএসবি
  • ওজন ৩৪০ গ্রাম

কেমন হয়েছে Comment এ জানাবেন।

About বিদ্যুৎ বিশ্বাস

একটি উত্তর দিন