গাজীপুরে আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুলের ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

গাজীপুরে আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুলের ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

jabbarগাজীপুরে মো. ইউসুফ আলী ট্রাস্টের উদ্যোগে বাংলাদেশে প্রথম কম্পিউটার ভিত্তিক আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুলের ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী বুধবার পালিত হয়েছে। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কাজী আজিম উদ্দিন কলেজে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর জেরিনা সুলতানা । প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তিবিদ মোস্তাফা জব্বার। সভাপতিত্ব করেন কাজী আজিম উদ্দিন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. আলতাফ হোসেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কাজী আজিম উদ্দিন কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মো. মুজিবুর রহমান। প্রধান অতিথি অধ্যক্ষ প্রফেসর জেরিনা সুলতানা বলেন, ১৯৯৯ সালের ২৪ ডিসেম্বর গাজীপুর থেকে আনন্দ মাল্টিমিয়া স্কুলের যাত্রা শুরু হয়। বাংলাদেশে এরকম স্কুল রয়েছে ত্রিশের অধিক। প্রধান আলোচক মোস্তফা জব্বার বলেন, শিশু শ্রেণির ডিজিটাল শিক্ষার যাত্রা শুরু হয় গাজীপুর থেকে ১৯৯৯ সালে। গাজীপুরে প্রথমে ১৩ জন ছাত্র-ছাত্রী নিয়ে কম্পিউটার ভিত্তিক স্কুল যাত্রা শুরু হয়। ১৫ বছর আগে কম্পিউটারে মাধ্যমে লেখাপড়া করা যায় , সে ধারণা আমরাই প্রথমে দেই। পর্যায়ক্রমে কম্পিউটার শিক্ষা বিষয় বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। ২০২১ সালের মধ্যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল ক্লাস রুম হবে। মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে গাজীপুর একটি বিশেষ জায়গা দখল করে আছে, ঠিক তেমনি ডিজিটাল শিক্ষার ইতিহাসে গাজীপুর বিশেষ জায়গা দখল করে আছে। অনুষ্ঠানে ১৫ বছর আগের আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুলের ছাত্রদের পরিচয় করে দেন মোস্তাফা জব্বর। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্যায়ে ডিজিটাল শিক্ষার উপকরণ প্রদর্শন করা হয়।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন