কালিয়াকৈরে ন্যাশনাল ডেটা সেন্টার স্থাপনের চুক্তি অনুমোদন

কালিয়াকৈরে ন্যাশনাল ডেটা সেন্টার স্থাপনের চুক্তি অনুমোদন

hitechপ্রায় ১২ শ’ কোটি টাকায় কালিয়াকৈরে তথ্য আদান-প্রদানের সর্বশেষ প্রযুক্তি সম্বলিত জাতীয় তথ্যকেন্দ্র (ন্যাশনাল ডেটা সেন্টার) নির্মাণের জন্য দুটি চীনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে সরকার।
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সভাপতিত্বে বুধবার সচিবালয়ে ‘সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি’র বৈঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়।
বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম সচিব মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান কনসোর্টিয়াম ‘জেডটিই হোল্ডিং কোম্পানি লিমিটেড’ ও ‘জেডটিই কর্পোরেশন’ এর সঙ্গে ‘সরাসরি ক্রয়’ পদ্ধতিতে (ডিএমপি) এ চুক্তি হবে।
চীনের এক্সিম ব্যাংকের অর্থায়নে চার স্তরের এই ডেটা সেন্টার (৪ টিডিসি) নির্মাণে মোট ব্যয় হবে ১৫ কোটি ৪০ লাখ ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ দাঁড়ায় ১ হাজার ১৯৯ কোটি ৩৫ লাখ টাকা।
মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, “তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ সভায় এ প্রস্তাব উপস্থাপন করে। সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অংশ হিসাবে কালিয়াকৈর হাইটেক পার্কে এটি নির্মাণ করা হবে।”
তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে জানান, তথ্য বিনিময়ে ক্লাউড কম্পিউটিং ও জি-ক্লাউড প্রযুক্তির এই ডেটা সেন্টার হবে বিশ্বের ‘পঞ্চম বৃহত্তম’।
পরিকল্পনা অনুসারে এই ডেটা সেন্টার স্থাপনে প্রয়োজন হবে ২০ একর জমি। সব ঠিক থাকলে চলতি বছরের মধ্যেই এর নির্মাণ কাজ শুরু করা যাবে বলে আশা করছে সরকার।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন