ওয়েব ডেভেলপমেন্ট কিভাবে শিখবেন, কোথায় শিখবেন – ব্যবহারিক গাইডলাইন টুলস্ এবং রিসোর্স সহ
ওয়েব ডেভেলপমেন্ট

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট কিভাবে শিখবেন, কোথায় শিখবেন – ব্যবহারিক গাইডলাইন টুলস্ এবং রিসোর্স সহ

আমি এখানে গতানুগতিকভাবে  বণর্ণা না করে একটু ব্যবহারিক ভাবে বিষয়টি ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করব।

প্রথমে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট সম্পর্কে একটি ধারনা  দেয়ার চেষ্টা করব, তারপর প্রথম থেকে ধাপে ধাপে শেখার পদ্ধতিগুলো বণর্ণা করব, সবশেষে কোথায় শিখবেন  সেই সম্পর্কে ধারনা দিব।

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট শেখার আগে আপনাকে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট সম্পর্কে ভালভাবে জানতে হবে ।ওয়েব ডেভেলপমেন্ট আসলে কি ? একেবারে সহজভাবে বলতে গেলে আপনি যে ফেসবুক ব্যবহার করেন অথবা এই সাইটটি  দেখতেছেন এগুলো এক একটি ওয়েব সাইট । এই ওয়েব সাইটগুলো তৈরির বিভিন্ন ধাপ রয়েছে। ওয়েব সাইটটির পরিকল্পনা করা, ডিজাইন করা সবশেষে ব্যবহাররে জন্য প্রস্তুত করা এই সব কাজই ওয়েব ডেভেলপমেন্টের অর্ন্তভুক্ত।

কিভাবে তৈরি হয় ওয়েবসাইট ?

প্রথমে একজন ডিজাইনার ওয়েবসাইটির ডিজাইন করে । সাধারনত ফটোশপ দিয়ে ডিজাইটির একটি বাহ্যিক রূপ দেয় । কিন্তু ফটোশপে যেসব টেক্সট  ইমেজ ব্যবহার করা হয়  সেগুলোত আমরা যেই ব্রাউজার ব্যবহার করি যেমন  ফায়ারফক্স, গুগল ক্রোম ইত্যাদি বুঝতে পারবে না । এই ব্রাউজারগুলোকে বোঝানোর জন্য আলাদা কিছু ভাষা আছে যেমন – এইচটিএমএল, সিএসএস, জাভাস্ক্রীপ্ট ইত্যাদি । প্রথমে এইচটিএমএল দিয়ে ফটোশপে যে ডিজাইনটি করা হয় সেটি একটি কাঠামো তৈরি করা হয় । তারপর সিএসএস দিয়ে ফটোশপে যে ডিজাইন করা হয়েছে সেই রকম ডিজাইন করা হয় । জাভাস্ক্রীপট এবং জেকুয়েরি দিয়ে ডিজাইনে বিভিন্ন রকম এডভান্স ফিচার যেমন যোগ করা হয়।এরপর পিএইচপি মাইএসকউএল ইত্যাদি দিয়ে ওয়েব সাইটি ব্যবহার উপযোগী করা হয়  ।

কিভাবে শিখবেন ওয়েব ডেভেলপমেন্ট

প্রথমেই আপনাকে মনস্থির করতে হবে যে কমপক্ষে দুই বছর সময় ব্যয় করবেন  শুধু শেখার জন্য। তারপর ফেসবুকের দুইটা গ্রুপে যোগ দিবেন একটা হল আর আর ফাউন্ডেশনের অফিসিয়ার গ্রুপ আর একটি হল  odesk help  গ্রুপ। গ্রুপে যোগ দিয়েই প্রথমেই গ্রুপের ফাইল গুলো পড়ে ফেলেন । প্রথমে কিছুই বুঝবেন না তারপরও ধৈর্য ধরে পড়ে ফেলেন।  এরপর গ্রুপে যে যত পোষ্ট দিবে নিয়মিত পড়তে থাকেন।

তারপর আর আর ফাউন্ডেশনের বেসিক এইচটিএমএল  টিউটোরিয়াল দেখেন ।পারলে সাথে বিডি গিকস্ এর এইচটিএমএল  টিউটোরিয়ালও দেখতে পারেন।  এরপর সিএসএস এবং সাথে ফটোশপের টিউটোরিয়াল দেখেন । আপনি টিউটোরিয়ালগুলো এক সপ্তাহে শেষ করতে পারবেন। ভুলেও এরকম করবেন না , অন্তত তিন মাস সময় দিন এইচটিএমএল, সিএসএস  এবং ফটোশপ শিখতে ।কারন মনে রাখবেন এটাই আপনার ভিত্তি । এই ভিত্তি যত মজবুত হবে সামনের পথ গুলো তত সহজ হবে।

বাংলা  টিউটোরিয়াল দেখার পড় অবশ্যই ভাল মানের কোন ইংরেজী টিউটোরিয়াল দেখুন। ইংরেজী ফ্রি  টিউটোরিয়াল  সাইট লিস্ট  আমাদের টিউটোরিয়াল রিসোর্স  পেজে দেয়া  আছে ।

এই অংশটি মনোযোগ দিয়ে পড়েন –

এরপর পথ আপনার দুইটি ।এক যেকোন একটি সিএমএস  যেমন – ওয়ার্ডপ্রেস, জুমলা  ইত্যাদি শেখা ।দ্বিতীয় অন্যান প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ শিখে নিজেকে একজন ওয়েব ডেভালপার হিসেবে গড়ে তোলা।

যদি সিএমএস শিখতে চান অবশ্যই আপনাকে  জাভাস্ক্রীপ্ট , জেকুয়েরি , পিএইচপি সম্পর্কে বেসিক ধারনা থাকতে হবে।এগুলো শেখা ছাড়াও আপনি সিএমএস শিখতে পারবেন তবে প্রফেশনালি কাজ করা কঠিন হয়ে যাবে। আপনার খুব ভালভাবে শেখার দরকার নেই অথবা প্রোগ্রামিং জানার দরকার নেই । আপনি শুধু জানবেন কোন কোড দিয়ে কিভাবে কাজ করে ।

দ্বিতীয়ত আপনি  জাভাস্ক্রীপ্ট,জেকুয়েরি , পিএইচপি, মাইএসকিউএল ইত্যাদি ল্যাংগুয়েজ খুব ভালভাবে শিখতে পারেন এক্ষেত্রে আপনার সময় লাগবে বেশি এবং অনেক শ্রম দিতে হবে।তবে একটা কথা সত্য এই রকম ডেভালপারের চাহিদা বাজারে অনেক বেশি । একটু কষ্ট করে দুই তিন বছরে যদি শিখতে পারেন কাজই আপনার পেছনে ঘুরবে আপনার কাজের পেছনে ছুটতে হবে না।

আশাকরি ভাল একটি ধারনা পেয়ে গেছেন। এবার আপনিই সিদ্ধান্ত নেন কোন  পথে যাবেন।

কোথায়  শিখবেন ?

এখন অনলাইনে এত রিসোর্স  যে খুব সহজে একা একাই  আপনি শিখতে পারবেন। এই ওয়েব সাইটে টিউটোরিয়াল রিসোর্স নামে একটি পেজ আছে যেখানে সব টিউটোরিয়াল রিসোর্স পাবেন।  আর টুলস্ পেজে পাবেন সব রকম  টুলস্ ।

তবে যদি টাকা খরচ করে শিখতে চান একটা ব্যাপারে লক্ষ্য রাখবেন । আমাদের দেশে এখন পযর্ন্ত  ভাল মানের ট্রেনিং সেন্টার আছে হাতে  গোনা কয়েকটি।তাই অযথা টাকা নষ্ট করবেন না।

আপনি নিজে নিজে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট শেখার জন্য যত রকম সিসোর্স প্রয়োজন সব পাবেন এই ওয়েব সাইটে।

About onnovinno

একটি উত্তর দিন