এবার অভিযোগ জানাতে বিটিআরসির শর্টকোড

এবার অভিযোগ জানাতে বিটিআরসির শর্টকোড

গ্রাহকদের কাছ থেকে ইন্টারনেট ও মোবাইল ফোন সেবাসহ তথ্যপ্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট অভিযোগ শুনতে গত সপ্তাহে হট লাইন চালু করেছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। এবার শর্টকোড চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন। গ্রাহকরা তাদের যে কোনো অভিযোগ এ দুটি নম্বরে ফোন করে জানাতে পারবেন।
গত বুধবার থেকে অনানুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ নেওয়ার জন্য রাষ্ট্রায়ত্ত্ব অপারেটর টেলিটকের ০১৫৫৫ ১২১ ১২১ নম্বরটি চালু করা হয়েছে। ওই দিন থেকেই নম্বরটিতে অভিযোগ আসতে শুরু করেছে।
কমিশনের ১৮২তম বৈঠকে রোববার শর্টকোড চালুর সিদ্ধান্ত হয়। তবে কি প্রক্রিয়ায় এ সেবা চালু হবে তা এখনও ঠিক হয়নি।
সেবা বাড়াতে এসব উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে বিটিআরসি’র সিস্টেম অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।
এর আগে ইন্টারনেটের গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করতে বিটিআরসি তিনটি কমিটিও করেছে। এই কমিটি ইতিমধ্যে আইএসপিগুলোর সঙ্গে বৈঠক করেছে। তাছাড়া কমিটি বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে আইএসপিদের কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ শরু করেছে।
গত মাসের শেষ দিকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক গ্রাহক সেবা বাড়াতে টেলিযোগাযোগ বিভাগকে একটি চিঠি দিয়ে অনুরোধ করেন।
পরে টেলিযোগাযোগ বিভাগ থেকে এ বিষয়ে বিটিআরসিকে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়। তার প্রেক্ষিতেই এই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিটিআরসি’র বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা।
এর আগে কমিশন btrc@btrc.gov.bd ঠিকানার একটি ইমেইল চালু করে। সেখানেও প্রতিদিন অনেক অভিযোগ জমা পড়ে।
এসব অভিযোগ নিস্পত্তির বিষয়েও কোনো তথ্য এখন পর্যন্ত কমিশন প্রকাশ করেনি।
এদিকে সার্ভিস কোয়ালিটি নীতিমালা না করে এসব উদ্যোগ নেওয়াতা তা লোক দেখানো কি-না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।
নির্দিষ্ট কোনো নীতিমালা না থাকায় ঠিক কি মাত্রার সেবা না পেলে গ্রাহক অভিযোগ জানাতে পারবেন সে সম্পর্কে কারো কোনো ধারণা নেই। ফলে একরকম অগোছালো অবস্থার মধ্য দিয়ে এসব আয়োজন করা হচ্ছে বলে অনেকের মন্তব্য।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন