ই-ক্যাবের দ্বিতীয় বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

ই-ক্যাবের দ্বিতীয় বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

AGM ecabডিজিটাল বাংলাদেশে ভবিষ্যতে সব ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানই ডিজিটাল হয়ে যাবে এবং ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ই-ক্যাব) ডিজিটাল ব্যবসায় গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালনের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অবদান রাখবে। গত মঙ্গলবার কাকরাইলস্থ আইডিইবি ভবনে ( ১৬০/এ, কাকরাইল, ঢাকা) অনুষ্ঠিত ই-ক্যাবের দ্বিতীয় বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) এমনই আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়।
ই-ক্যাব সভাপতি রাজিব আহমেদের সভাপতিত্বে সভায় ই-ক্যাবের সদস্য কোম্পানির প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। ই-ক্যাবের দুই শত চল্লিশটি সদস্য প্রতিষ্ঠানসহ এই সাধারণ সভায় অংশগ্রহণ করেন সংগঠনের সকল কার্যনির্বাহী সদস্যবৃন্দ যথাক্রমেসহ-সভাপতি রেজওয়ানুল হক জামী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেজান সামস, কার্যনির্বাহী পরিচালক মোঃ আরিফুল হাই রাজীব, নাছিমা আক্তার এবং মোঃ আফজাল হোসেন। এছাড়া সভায় উপস্থিত ছিলেন স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান বৃন্দ, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মোস্তাফা জব্বার, মোহাম্মদ ইকবাল জামাল সহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ। ই-ক্যাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবদুল ওয়াহেদ তমাল দেশের বাহিরে অবস্থান করায় অডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সভায় অংশগ্রহণ করেন এবং ধন্যবাদ জানান।
সভায়ই-ক্যাবযুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেজান সামস সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াহেদের পক্ষে ই-ক্যাবের ২০১৬ সালের কর্মকান্ডের বিবরণী তুলে ধরেন। ই-ক্যাব অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ আবদুল হক অনু ২০১৫-১৬ অর্থ বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন। উপস্থাপিত এসব প্রতিবেদনের উপর সভায় উপস্থিত উল্ল্যেখযোগ্য সংখ্যক সদস্য আলোচনায় অংশ নেন এবং তাদের গুরুত্বপূর্ণ মতামত দেন।
উপস্থিত সদস্যরা ই-কমার্সের অগ্রগতির জন্য পণ্য ডেলিভারি সমস্যার সমাধান এবং উদ্যোক্তাদের ঋণ প্রাপ্তিতেই-ক্যাবকে উদ্যোগ গ্রহণের আহবান জানান।
ই-ক্যাব অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ আবদুল হক বলেন, ই-কমার্স খাতের উন্নয়নে আমাদের সবাইকে বিগত বছরের মত ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।
সবশেষে ই-ক্যাব সভাপতি রাজিব আহমেদ সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন