ইউরোপে বিটুবি কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছে ৩৮ বাংলাদেশি প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান

ইউরোপে বিটুবি কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছে ৩৮ বাংলাদেশি প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান

নেদারল্যান্ডস ট্রাস্ট ফান্ড (এনটিএফ)-৩ বাংলাদেশ প্রকল্পের আওতায় ইউরোপে তিনটি বিজনেস টু বিজনেস (বিটুবি) প্রোগ্রাম আয়োজন করেছে জাতিসংঘের ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড সেন্টার (আইটিসি)। বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) ও ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সহযোগিতায় আয়োজিত এই প্রোগ্রামে বাংলাদেশি ৩৮টি আইটি ও আইটিইএস কোম্পানি অংশ নিচ্ছে।

বেসিস সূত্র জানিয়েছে, ১১ নভেম্বর যুক্তরাজ্যের লন্ডন, ১৯ নভেম্বর ডেনমার্কের কোপেনহেগেন ও ৩ ডিসেম্বর নেদারল্যান্ডসের আমস্টারডামে এই বিটুবি প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে।

এনটিএফ-৩ বাংলাদেশ প্রকল্পের জাতীয় প্রকল্প সমন্বয়ক মো. মাহফুজুল কাদের বলেন, এনটিএফ-২ প্রকল্পের মতোই এনটিএফ-৩ প্রকল্পের আওতায় আগামী ২০১৭ সালের মাঝামাঝি পর্যন্ত ইউরোপ ও বাংলাদেশে আরও বিটুবি প্রোগ্রাম আয়োজন করা হবে। বাংলাদেশ তথ্যপ্রযুক্তি ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সেবার রপ্তানি বৃদ্ধি, বিদেশি বিনিয়োগ সম্ভাবনা বাড়ানোই এই আয়োজনের মূল লক্ষ্য। এর মাধ্যমে অসংখ্য যুব কর্মসংস্থান, বিশেষ করে নারীদের তথ্যপ্রযুক্তিতে কর্মসংস্থানের সম্ভাবনা রয়েছে।
বেসিস সভাপতি শামীম আহসান বলেন, ‘বেসিস ও ডিসিসিআইয়ের সহযোগিতায় ২০১১ সাল থেকে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সেবা খাতের উন্নয়নে এনটিএফ প্রকল্প কাজ করে যাচ্ছে। আমি জেনে আনন্দিত যে বাংলাদেশি অনেকগুলো কোম্পানি এই বিটুবি প্রোগ্রামে অংশ নিচ্ছে। আশা করি, এর মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে।’

উল্লেখ্য, আগামী বছরের প্রথম দিকে সরকারের তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ এবং বেসিসের যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৫-তে একই ধরনের বিটুবি প্রোগ্রামে যুক্তরাজ্য, ডেনমার্ক ও নেদারল্যান্ডস থেকে প্রতিনিধিদল পাঠানোর পরিকল্পনা নিয়েছে আইটিসি। এনটিএফ-৩ বাংলাদেশ প্রকল্পটির আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে নেদারল্যান্ডসের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিবিআই।

About অঞ্জন দেব

একটি উত্তর দিন