ইউটিউব ব্যবহারে টাকা গুনতে হবে!

ইউটিউব ব্যবহারে টাকা গুনতে হবে!

জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউব ব্যবহারে টাকা গুনতে হবে! তাই বলে দু:চিন্তার কিছু নাই। যে কোনো ভিডিও দেখতে গেলে নয়। প্রায় অর্ধশত জনপ্রিয় চ্যানেল ও জনপ্রিয় ভিডিওগুলো দেখতে এই চার্জ দিতে হবে।

ইউটিউব জানিয়েছে, আপাতভাবে ৫০টি জনপ্রিয় চ্যানেলকে এই আওতায় আনা হবে। ফলে ভিজিটররা যদি ঐ চ্যানেলের কোনো ভিডিও দেখতে চান তাহলে মাসিক চার্জ প্রায় ২ ডলার করে সাবক্রিপশন করতে হবে। এর পরিবর্তে চ্যানেল থেকে মোট আয়ের কিছু অংশ পাবে চ্যানেলটির মালিক অথবা যিনি ভিডিওটি আপলোড করবেন। ফলে তারা আরো ভালো ভিডিও আপলোড করতে আগ্রহী হবে।

youtube_video_540x540

অপর একটি সূত্র অনুযায়ী, একটি পেইড কনটেন্ট প্লাটফর্ম হতে পারে যাতে গুগলের নিজস্ব ভিডিও সাইট থাকবে। অন্যদিকে, টিভি শো এবং মুভি চ্যানেলের অনুমতি নেওয়া হবে। এই মাসের মধ্যেই পেইড চ্যানেলগুলো চালু হতে পারে জানিয়েছে ইন্ডিয়া টাইমস।

উল্লেখ্য, চালুর পর থেকেই দর্শক এবং ভিডিও আপলোডকারী সকলের জন্যই বিনামুল্যে ভিডিও আপলোড ও দেখার সুবিধা দিয়ে আসছে জনপ্রিয় এই ভিডিও শেয়ারিং সাইটটি। এখান থেকে তাদের আয়ের একমাত্র উৎস ছিলো বিজ্ঞাপন, যা ভিডিও চালু করার সময় দেখানো হয়। এই আয়ের পরিমান বাড়ানো ও ভিডিও আপলোডকারী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের আয়ের ব্যবস্থা করতেই এই পদক্ষেপ নিয়েছে গুগলের মালিকানাধীন এই সাইটটি।

তবে পেইড চ্যানেল বা ভিডিওতে বিজ্ঞাপন দেখানো হবে কিনা সেটি সম্পর্কে কিছু জানায়নি ইউটিউব।

About বদরুদ্দোজা মাহমুদ তুহিন

একটি উত্তর দিন