আন্দোলনে যাচ্ছেন ফ্রিল্যান্সাররা…

আন্দোলনে যাচ্ছেন ফ্রিল্যান্সাররা…

পূর্ণ গতির ইন্টারনেট, ডাটার সঠিক দাম নির্ধারণ ও পেপাল চালুসহ ৭ দফা দাবিতে পিসিহেল্পলাইনবিডি ব্লগের উদ্যাগে আগামী ৩১ মে মানববন্ধনের আয়োজন করছে। তাদের পক্ষ থেকে এরই মধ্যে একটি ফেসবুক ইভেন্ট পেজ খোলা হয়েছে। যেখানে প্রায় ১২ হাজারের বেশি ফেসবুক ব্যবহারকারী অংশগ্রহণ করবেন বলে জানা গেছে। ইতিমধ্যেই এটি ফেসবুকে আলোড়ন তুলেছে। একে অপরকে ইভেন্টে জয়েন করার জন্য আহবান জানাচ্ছেন। প্রেস ক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন আয়োজনের জন্য প্রশাসনের কাছে অনুমতি চাওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ঠরা।

‘কমদামে পূর্ণ গতির ইন্টারনেট ও পেপাল দাবিতে পিসিহেল্পলাইনবিডির উদ্যোগে মানববন্ধনের ডাক’ নামের এই ইভেন্ট পেজটিতে যা বলা হয়েছে সেটি এখানে হুবহু প্রকাশ করা হলো।

“বর্তমানে অনেক ছাত্র ছাত্রী ও যুবক যুবতী ভাই বোনেরা ঘরে বসেই ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে প্রতিদিন বৈদেশিক মুদ্রা দেশে এনে দেশের জাতীয় অর্থনীতিতে ভূমিকা রেখে চলেছে, পড়ালেখার খরচ জোগানোর পাশাপাশি নিজেরাও স্বাবলম্বী হচ্ছেন কোন প্রকার সরকারি বেসরকারি উ্দ্যোগ ছাড়াই ।
অত্যন্ত দুঃখের বিষয় দফায় দফায় ইন্টারনেটের ডাটার দাম কমলেও গ্রাহক পর্যায়ে কোন প্রভাব পরে নাই, রক্তচোষা ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান গুলো একদিকে যেমন গলাকাটা মূল্য নিচ্ছে অপরদিকে ইন্টারনেটের ধীরগতির জন্য আমাদের বায়ার হারাতে হচ্ছে , তাই পিসিহেল্পলাইনবিডির উদ্যোগ নিয়েছে মানববন্ধনের মাধ্যমে সরকারের কাছে আমাদের সমস্যাগুলো নীরব ও শান্তিপূর্ণভাবে তুলে ধরবে ।

PC Helpline BD

আমাদের দাবীসমূহঃ

১, দফায় দফায় ডাটার দাম কমলেও গ্রাহক পর্যায়ে কোন প্রভাব পরে নাই, আমরা চাই সরকার ১ জিবি ডাটার দাম ৫০ টাকা ও ৫ জিবির দাম ২০০ টাকা নির্ধারণ করে দিবেন ।

২, ফ্রিল্যান্সার ও ইকমার্সের স্বার্থে বাংলাদেশে দ্রুত পেপাল চালুর ব্যাপারে সরকারি জরুরী উদ্যাগ নিতে হবে ।

৩, ইন্টারনেটের ফেয়ার ইউস পলিসি সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করে ইন্টারনেটের নুন্যতম গতি নির্ধারণ করে করে পূর্ণ গতির ডাটা দিতে হবে ।

৪, ইন্টারনেট সেবাদানকারী মোবাইল কোম্পানি গুলোর স্বেচ্ছাচারিতা রোধে একটি বিশেষ সেল গঠন করতে হবে ।

৫, ডাটার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও অব্যবহিত ডাটা পরের বার ডাটা প্যাকেজ চালু করার সাথে সাথে যোগ করে দিতে হবে ।

৬, গনমাধ্যমে আনলিমিটেডের বিজ্ঞাপন দিয়ে গ্রাহকদের প্রতারিত করা যাবেনা ।

৭, ফ্রিলান্সিং এর ব্যাপারে ব্যাংক কর্মকর্তাদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দিয়ে, ব্যাংক কর্মকর্তা দ্বারা ফ্রিল্যান্সারদের সকল হয়রানী বন্ধ করতে হবে ।

আমাদের দাবী পুরন কর , আমরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়বো ।

About বদরুদ্দোজা মাহমুদ তুহিন

একটি উত্তর দিন