আগামী দু’মাসের মধ্যে পুরোপুরি প্রস্তুত হবে “শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক”

stpযশোর শহরে ১২ একর ১৩ শতাংশ জমির উপর নির্মিত শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। আজ বিকালে তিনি প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করার পর আয়োজিত প্রকল্পের অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় এ কথা বলেন।
এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের দক্ষিণাঞ্চলের মেধাবী সন্তানদের জন্য আধুনিক কর্মক্ষেত্র সৃষ্টি করার পাশাপাশি এই অঞ্চলকে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অন্যতম হাবে পরিণত করতে যশোরবাসীসহ পুরো জাতিকে এই সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কটি উপহার দিয়েছেন। ২০২১ সালের মধ্যে তথ্যপ্রযুক্তি খাত থেকে ৫ বিলিয়ন ডলার আয়ের যে লক্ষমাত্রা নিয়ে কাজ করছি, আশা করি এই পার্ক তার একটি বড় অংশের যোগান দেবে।
প্রতিমন্ত্রী পরে লার্নিং এন্ড আর্নিং মেলা, যশোর এর সমাপনীতে প্রধান অতিথি হিসেবে এবং জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে “কমিউনিটি সেফটি এওয়ারন্যাস” শীর্ষক কর্মশালায়ও অংশগ্রহণ করেন।
উল্লেখ্য ২০১০ সালের ২৭ ডিসেম্বর যশোরে এক জনসভায় যশোরের জন্য একটি আইটি পার্ক স্থাপনের ঘোষণা দিয়েছিলেন যার দৃশ্যমান বাস্তবতা শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক। এই পার্কটিতে ইতোমধ্যে ৩টি জাপানী কোম্পানীসহ ১৩টি আইটি কোম্পানীকে দখল প্রদান করা হয়েছে। আরো ২৪টি কোম্পানী বরাদ্দের জন্য আবেদন করেছে যা যাচাই বাছাই পর্যায়ে রয়েছে।
এই পার্কে ২ লক্ষ ৩২ হাজার বর্গফুট আয়তনের ১৫ তলা মাল্টি ট্যানেন্ট ভবন, ৯৮ হাজার বর্গফুট আয়তনের ১২ তলা আবাসিক ভবন, ২৫ হাজার বর্গফুট আয়তনের ১টি বেইজমেন্ট ফ্লোরসহ ৩ তলা মাল্টি পারপাস ভবন রয়েছে।
এই পার্কটিতে ১০ হাজার আইটি প্রফেশনাল তরুণ-তরুণী কাজের সুযোগ পাবে।

About Sohel Rana

একটি উত্তর দিন