আইপ্যাড মিনি বাজারে আনল অ্যাপল কম্পিউটার ইনকরপোরেটেড

আইপ্যাড মিনি বাজারে আনল অ্যাপল কম্পিউটার ইনকরপোরেটেড

সাত ইঞ্চি ট্যাবলেট প্রসঙ্গে অ্যাপলের প্রয়াত সহপ্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবস বলেছিলেন, ‘খুবই ছোট!’ সেটা ২০১০ সালের কথা। বছর দুই গড়াতে না-গড়াতেই গত মঙ্গলবার আইপ্যাড মিনি বাজারে আনল অ্যাপল কম্পিউটার ইনকরপোরেটেড।
এর পর্দার দৈর্ঘ্য ৭ দশমিক ৯ ইঞ্চি। সহজেই অনুমেয়, অ্যামাজনের কিন্ডল ফায়ার, গুগলের নেক্সাস ৭ এবং স্যামসাং গ্যালাক্সি ট্যাবের বিপুল জনপ্রিয়তা ঠেকাতেই অ্যাপলের এই নতুন সংযোজন।
গত মঙ্গলবার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় এই নতুন পণ্য সবার সামনে উন্মোচন করলেন অ্যাপলের বিপণন বিভাগের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ফিল শিলার। তিনি বললেন, ‘এটা কেবল আইপ্যাডের সংকুচিত সংস্করণ নয়, পুরোপুরি নতুন নকশা করা। আমরা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম নতুন কিছু উপস্থাপন করার, আমরা আমাদের কথা রাখলাম।’

১৬ গিগাবাইটের আইপ্যাড মিনির দাম ধরা হয়েছে ৩২৯ ডলার। এতে আছে ওয়াই-ফাই সংযোগ। একই জিনিসের সঙ্গে ফোন করার সুবিধাযুক্ত আইপ্যাড মিনি কিনতে চাইলে গুনতে হবে ৪৫৯ ডলার। ৬৪ গিগাবাইটের মডেলটিতেও ওয়াই-ফাই এবং ফোন করার সুবিধা যুক্ত আছে। সেটির দাম ধরা হয়েছে ৬৫৯ ডলার।
শিলার জানান, আইপ্যাড মিনির জন্য আগামীকাল শুক্রবার থেকে আগাম ফরমাশ (প্রি-অর্ডার) করতে পারবেন ক্রেতারা। ওয়াই-ফাই সংস্করণটি বাজারে পাওয়া যাবে ২ নভেম্বর ২ তারিখ থেকে। এশিয়া ও ইউরোপের ৩৬টি দেশ এবং যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে পাওয়া যাবে অ্যাপলের এই নতুন পণ্য।
আইপ্যাড মিনিতে থাকছে আইপ্যাডের যাবতীয় সুবিধা। পাশাপাশি ক্যামেরা আছে দুদিকেই। ওজন দশমিক ৬৮ পাউন্ড, যা কিনা আইপ্যাডের অর্ধেক। আর এর পুরুত্ব মাত্র ৭ দশমিক ২ মিলিমিটার।
তবে আইপ্যাড মিনির দাম নিয়ে সন্তুষ্ট নন অনেক বিশেষজ্ঞই। অ্যামাজন, গুগল ও স্যামসাং—এরা সাত ইঞ্চি ট্যাবলেট বিক্রি করছে ১৯৯ ডলারে। সেখানে অ্যাপলের আইপ্যাড মিনির সর্বনিম্ন দাম ৩২৯ ডলার। তার পরও বাকিদের সঙ্গে অ্যাপল যে জবরদস্ত লড়াই চালাবে, এ ব্যাপারে মোটামুটি সবাই একমত।
এ ছাড়া একই দিনে ১৩ ইঞ্চি মনিটরের ম্যাকবুক প্রো-ও বাজারে এনেছে অ্যাপল। ২ দশমিক ৫ গিগাহার্টজ ডুয়ালকোর আই ফাইভ প্রসেসরের এই ল্যাপটপ কম্পিউটারের দাম পড়বে এক হাজার ৬৯৯ ডলার।

About blogger - ব্লগার

একটি উত্তর দিন