অ্যাপল-গুগলের লড়াই অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে !!

অ্যাপল-গুগলের লড়াই অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে !!

অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে অ্যাপল-গুগলের লড়াই প্রযুক্তিবিশ্বে সেলফোন অপারেটিং সিস্টেমের বাজার দখল নিয়ে এক ধরনের ঠাণ্ডা লড়াই চলছে অ্যাপল ও গুগলের। সমস্যার সমাধানে অ্যাপলের প্রধান টিম কুক এবং গুগলের প্রধান ল্যারি পেজ আলোচনায় বসতে পারেন এমন ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা। তারপরও সহসা সমস্যার সমাধান হবে না বলে মনে করছেন এ খাতের বোদ্ধারা।

প্রায় ডজন খানেকেরও বেশি দেশে স্যামসাংয়ের সঙ্গে মামলা চলছে প্রতিষ্ঠানটির। কিছুদিন আগে বিশাল জয়ও পেল প্রতিষ্ঠানটি। পেটেন্ট মামলায় স্যামসাংকে পরাস্ত করলে তো হবে না, অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের তো আরও অনেক সেলফোন নির্মাতা রয়েছে। এ অ্যান্ড্রয়েডই তো তাদের বাজার দখলের প্রধান অন্তরায় আর অ্যান্ড্রয়েডের মালিক অ্যাপলেরই প্রতিবেশী গুগল।

গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল ডাটা করপোরেশনের (আইডিসি) তথ্যানুযায়ী, বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে স্মার্টফোনের অপারেটিং সিস্টেমের বাজারে গুগলের অ্যান্ড্রয়েডের দখল ছিল ৬৮ শতাংশ। এর বিপরীতে অ্যাপলের আইওএসের বাজার দখল ছিল মাত্র ১৭ শতাংশ।

গুগলের এ অপারেটিং সিস্টেমের সবচেয়ে সফল ব্যবহারকারী স্যামসাংকেই শুরুতে ধরেছিল অ্যাপল। গত বছরের মার্চ থেকে এ মামলাগুলো শুরু হলেও এ বছরের ২৪ আগস্ট একটি মামলার রায় হয়। এতে স্যামসাংকে ১০৫ কোটি ডলার জরিমানার আদেশ দেন আদালত।

দুই সিইওর আলোচনায় হয়তো এ ঝামেলার কিছুটা নিষ্পত্তি সম্ভব, কিন্তু আসন্ন কোনো চুক্তির সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না। কারণ দেরিতে গুগল এ বাজারে এলেও তারাই বা কেন লাভের ভাগ ছাড়বে? বিজ্ঞাপন থেকে আয়ের পাশাপাশি স্মার্টফোন থেকে অর্থ এলে তো কোনো ক্ষতি নেই।

ল্যারি পেজের তুলনায় স্টিভ জবসের সম্ভবত তা অনেক বেশিই ছিল। অ্যাপলের বর্তমান সিইও টিম কুকও একেবারে ফেলনা নন। কারণ তিনি তো স্টিভ জবসের হাতেই গড়া।

About বিদ্যুৎ বিশ্বাস

একটি উত্তর দিন